উজ্জ্বল অনুজ্জ্বলের একগুচ্ছ কবিতা

উজ্জ্বল অনুজ্জ্বল
উজ্জ্বল অনুজ্জ্বল
ad

প্রতিক্ষা-

তোমার চুম্বনের দাগ, প্রত্যাশার ফ্রেমে বাঁধাই করে, প্রোফাইল পিকচারে ঝুলিয়ে দিয়েছি ৷

কবিতার মতো প্রতিদিন সন্ধ্যা, কিংবা একাকী রাতে, চুম্বনের গলার মালা বদলাই ৷

দীর্ঘশ্বাসের ধুনুচির ধোঁয়ার হ্যালুসিনেশনে, তোমাকে দেখি ৷

এতোটুকু নিয়ে রাতগুনি !
দিনময় অপেক্ষায় প্রতিক্ষায় !

প্রত্যাশা-
দাউ দাউ করে চিতায় পুড়ছি,
কবরে শুয়ে আছি মাটির অপেক্ষায়,
সাগরে ভাসছে আমার মৃতদেহ-
কিংবা প্রমূখ……..

তখন যদি মেসেঞ্জারে-
ভেসে ওঠে তোমার প্রতিক্ষা……
আগুন, মাটি, জল, সব ফেলে,
সেল ফোন কানে তুলে-
আবারও জিজ্ঞাসা করবো,

কেমন আছো পাখি, তুমি কি উড়তে পারছো…….

তিন তাস-

হাতে তোমার এলোমেলো আত্মহত্যার স্ক্রিপ্ট,
আমার হাতে গোছানো দুই টেক্কা,
হয় তুমি না হয় নষ্ট জীবন ৷
তুমি বাজি ধরেছো ছলনা,
আমি ধরেছি ব্যাগ ভর্তি দুর্বিষহের আগামি ৷
যতক্ষণ না ফুরাই….
এসো আমরা তিন তাস খেলে যাই ৷

নিশ্চিন্তের মুক্তি চাই না-

পুরোপুরি নিশ্চিন্তের মুক্তি চাইনা কিছুটা জড়িয়ে থাকি
তোমার শরীরে গন্ধ হয়ে ৷

ড্রেসিং টেবিলের আয়না হয়ে
ক্লিপ হয়ে আটকে থাকি
তোমার চুলের মাঝ বরাবর,
অথবা পাশবালিশ
কিংবা শীতের কাঁথায় ৷

অন্তত কিছুটা মনে পড়ুক,
শাড়ীর কুচিতে সেফটিপিন
এঁটে দিতে না পারায়,
নিষ্কর্মা বকুনি ৷

কিছুই মনে না পড়ুক
ডালের লবন হয়ে থাকি ৷

মনে পড়ুক ক্ষতি কি ?
এখানে সেখানে হাটতে হাটতে
রিক্সা,বাস, ট্রেনে রাস্তার ধারে
নৌকা কিংবা স্টিমার ঘাটে ৷

চা এর কাপে ভেসে উঠুক তোমার মুখ
চুমুকেই ভীষণ বিষম খাব,
হাত বুলাবে তোমার হাত
আমার অন্যমনষ্কতায় ৷

এতটা নিশ্চিন্তের মুক্তি চাইনা আমি,
এত ঢিলেঢালা মুক্তি দিলে
আরতো বাজব না-
সকাল দুপুর রাতে ৷

সংকোচ কেনো ?

অর্ধযুগ স্থির আছে সাদা-কালো ক্যালেন্ডারের একটি পাতা,
কারো নাকি সাধ্য হয়নি সে পাতা উল্টাবার,

ছত্রিশ ঋতুপর উজান শুধু পাতা উল্টিয়ে কেটেছে সাঁতার……
এসব তোমার কথা……
বিশ্বাস করে পেয়েছি স্বস্তির পুরস্কার…..

আজ তাই ভূমিতে তোমার
উজানের নিশানা চাই উড়িয়ে দিতে……

আমি ছাড়া কাউকে যখন কাটতে দেবে না সাঁতার……নদীতে তোমার !
এঁকেদি তবে একটা চিহ্ন…..
ভয় কি ? আপত্তি কেন বার বার ?

ইচ্ছা-

ইচ্ছে ছিলো জোছনা ভর্তি একটি রাত তোমাকে আজ উপহার দেবো….

ইচ্ছে ছিলো অন্ধকারকে ভালোবাসায় কাঁচের এক জার জোনাকি দেবো…..

ইচ্ছে ছিলো ভোরের পাখির প্রথম গান তোমায় আমি প্রথম শোনাব…….

ইচ্ছে ছিলো রাত জাগা আলসেমি তোমার শরীরে ছড়িয়ে দেবো….

ইচ্ছে গুলো এখন তোমার ঘুমের তলায় চাপা রইল…
চোখ খুলেই ইচ্ছে গুলো একটি বার চোখ বুলিয়ে নিও…..

ad