এসএসসিতে পাশের হার ৭৭.৭৭ শতাংশ

SSC, exam
ad

জাগরণ ডেস্ক: এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। এবারে গড় পাশে হার ৭৭ দশমিক ৭৭ শতাংশ, মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ লাখ ১০ হাজার ৬২৯ জন। এবারের পাসের হার গত বছরের থেকে কম। গত বছর পাসের হার ছিল ৮০ দশমিক ৩৫ শতাংশ।

রবিবার (৬ মে) সকাল ১০টার দিকে বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানদের সঙ্গে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ফলাফলের এই অনুলিপি হস্তান্তর করেন।

শিক্ষামন্ত্রী জানান, গত বছরের তুলনায় এবার এসএসসি ও সমমান ও কারিগরি পরীক্ষায় পাসের হার কম। এবার পাসের হার ৭৭.৭৭। মোট শিক্ষার্থী ছিল ২০ লক্ষ ২৬ হাজার ৫৭৪ জন। পাস করেছে ১৫ লাখ ৭৬ হাজার ১০৪ জন। এ বছরেও পাসের হারে মেয়েরা এগিয়ে। ৮টি শিক্ষাবোর্ডে ছাত্র পাসের হার ৭৮.৪০ এবং ছাত্রী পাসের হার- ৮০.৩৫।

এরপর দুপুর ১টায় সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে মাধ্যমিক পরীক্ষার ফল ঘোষণা করবেন তিনি। দুপুর ২টার পর থেকে পরীক্ষার্থীরা ফল জানতে পারবে। মোবাইল ফোনের এসএমএস, ইন্টারনেট ও নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে ফল জানা যাবে।

তবে বোর্ড থেকে ফলের কোনো হার্ডকপি সরবরাহ করা হবে না। পত্রিকা অফিসেও ফল পাওয়া যাবে না। বিশেষ প্রয়োজনে জেলা প্রশাসক (ডিসি) ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) দপ্তর থেকে ফলাফলের হার্ডকপি সংগ্রহ করা যাবে বলে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটি জানিয়েছে ।

এসএমএস ও ইন্টারনেটে ফল:

যেকোনো মোবাইল অপারেটর থেকে এসএমএস করে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল জানা যাবে। এজন্য SSC/DAKHIL লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে ২০১৮ লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠিয়ে ফল জানা যাবে।

এছাড়া শিক্ষা বোর্ডগুলোর ওয়েবসাইট http://www.educationboardresults.gov.bd থেকেও পরীক্ষার্থীরা ফল জানতে পারবেন।

গত কয়েক বছর থেকে পেপারলেস ফলাফল প্রকাশ করা হচ্ছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো www.educationboardresults.gov.bd ওয়েবসাইটে গিয়ে ফলাফল ডাউনলোড করতে পারবে। বোর্ড থেকে ফলাফলের কোনো হার্ডকপি সরবরাহ করা হবে না।

তবে বিশেষ প্রয়োজনে জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দফতর থেকে ফলাফলের হার্ডকপি সংগ্রহ করা যাবে।

ফল পুনঃনিরীক্ষা:

ফল পুনঃনিরীক্ষার জন্য টেলিটক মোবাইল থেকে আগামী ৭-১৩ মে পর্যন্ত আবেদন করা যাবে। আবেদন করতে RSC লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে বিষয় কোড লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে।

ফিরতি এসএমএসে ফি বাবদ কত টাকা কেটে নেওয়া হবে তা জানিয়ে একটি পিন নম্বর (পার্সোনাল আইডেন্টিফিকেশন নম্বর) দেয়া হবে।

আবেদনে সম্মত থাকলে RSC লিখে স্পেস দিয়ে YES লিখে স্পেস দিয়ে পিন নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে যোগাযোগের জন্য একটি মোবাইল নম্বর লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে।

প্রতিটি বিষয় ও প্রতি পত্রের জন্য ১২৫ টাকা হারে চার্জ কাটা হবে। তবে যে সব বিষয়ের দুটি পত্র (প্রথম ও দ্বিতীয় পত্র) রয়েছে যে সকল বিষয়ে আবেদন করলে দু’টি পত্রের জন্য ২৫০ টাকা ফি কাটা হবে।

শিক্ষা বোর্ড জানিয়েছে, একই এসএমএসে একাধিক বিষয়ের আবেদন করা যাবে। এক্ষেত্রে বিষয় কোড পর্যায়ক্রমে ‘কমা’ দিয়ে লিখতে হবে।

উল্লেখ্য, গত ১ থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারি এবারের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার তত্ত্বীয় এবং ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে ৪ মার্চ ব্যবহারিক পরীক্ষা হয়। এবার এসএসসি পরীক্ষায় ২০ লাখ ৩১ হাজার ৮৯৯ পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। এর মধ্যে ছাত্র ১০ লাখ ২৩ হাজার ২১২ এবং ছাত্রী ১০ লাখ আট হাজার ৬৮৭ জন।

ad