শীতলক্ষ্যায় নিখোঁজ ৩ জনের লাশ উদ্ধার

শীতলক্ষ্যা, ৩ লাশ, উদ্ধার,
ad

জাগরণ ডেস্ক: নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদীতে নোঙর করে রাখা লঞ্চের সঙ্গে ধাক্কা লেগে একটি যাত্রীবাহী ট্রলারের ছাদ থেকে পড়ে নিখোঁজ তিনজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১০ জুলাই) সকালে ঘটনাস্থলে লাশগুলো ভেসে উঠলে স্থানীয়রা নৌ পুলিশকে জানায়। পরে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল এসে লাশগুলো উদ্ধার করে।

নিহতদের মধ্যে দুইজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন- বন্দর উপজেলার মদনগঞ্জ ইসলামপুরের রমিজ উদ্দিনের ছেলে ইমন (১৮) ও একই এলাকার কানাই মিয়ার ছেলে দ্বীন ইসলাম (৩৫)।

নিখোঁজদের মধ্যে ওসমান গণির (৩৪) নাম থাকলেও তিনি ওসমানই কিনা, তা তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত করতে পারেনি ফায়ার সার্ভিস। এখন পর্যন্ত তার কোনো আত্মীয়-স্বজন লাশের খোঁজে আসেননি।

উল্লেখ্য, রবিবার (৮ জুলাই) রাতে শীতলক্ষ্যা নদীর সেন্ট্রাল খেয়াঘাট এলাকা থেকে একটি ট্রলার ছাদে প্রায় ৬০ থেকে ৭০ জন যাত্রী নিয়ে মদনগঞ্জ ঘাটে রওনা দেয়। অতিরিক্ত যাত্রীর চাপে ট্রলারটি ছাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কাত হয়ে যায়। এ সময় ট্রলারের ছাদ ভেঙে কয়েকজন যাত্রী নদীতে পড়ে যান।

বেশ কয়েকজন যাত্রী নদীতে পড়ে গেলেও অনেকেই সাঁতরে তীরে উঠে পড়েন। তবে নিখোঁজ থাকেন তিনজন। এ ঘটনার পর ওই রাত থেকেই বিআইডব্লিউটিএ এবং ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল নিখোঁজদের উদ্ধারে তল্লাশি অভিযান শুরু করে।

ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা রশীদ বলেন, উদ্ধার অভিযানের মধ্যেই শীতলক্ষ্যা নদীতে তিনজনের লাশ ভেসে ওঠে। পরে তাদের ডুবুরি দল তা উদ্ধার করে। আপাতত আর কেউ নিখোঁজ থাকার খবর না থাকলেও বিকাল পর্যন্ত শীতলক্ষ্যায় তল্লাশি চালানো হবে বলে জানান রশীদ।

নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো.শরফুদ্দীন বলেন, লাশ উদ্ধার করে আপাতত নদীর পাড়ে রাখা হয়েছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে স্বজনদের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে।

ad