পাকিস্তান ও মিসর থেকে পেঁয়াজ আমদানি করবে সরকার

onion,
ad

জাগরণ ডেস্ক: সরকার পাকিস্তান ও মিসর থেকে পেঁয়াজ আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১০ আগস্ট) বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের বাজারমূল্য নিয়ে এক পর্যালোচনা সভায় এ তথ্য জানানো হয়।

পর্যালোচনা সভায় বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, এবার বাংলাদেশের মতো ভারতেও বন্যা হয়েছে। এতে অনেক পেঁয়াজ নষ্ট হয়ে গেছে। তাই বিকল্প ব্যবস্থা হিসেবে পাকিস্তান ও মিসর থেকে আমদানির উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। দেশে পেঁয়াজ ছাড়া সব পণ্যের মূল্য স্থিতিশীল রয়েছে। বাংলাদেশের পেঁয়াজের চাহিদা বছরে ২২ লাখ টন। অভ্যন্তরীণভাবে উৎপাদন হয় ১৮ লাখ টন। বাকি ৪ লাখ টন আমদানি করতে হয়।

সভায় উপস্থিত পেঁয়াজ আমদানিকারক ব্যবসায়ীরা জানান, এ লক্ষ্যে এলসি করা হয়েছে। পেঁয়াজের প্রথম চালান চট্টগ্রাম বন্দরে এসে পৌঁছেছে। এই পেঁয়াজ যদি শিগগিরই বহির্নোঙর থেকে খালাস করা যায়, তাহলে আসন্ন কোরবানির ঈদের আগে আর পেঁয়াজের দাম বাড়বে না। তবে খালাসে দেরি হলে দাম বেড়ে যাবে বলে জানান ব্যবসায়ীরা।

ব্যবসায়ী জহির উদ্দিন আহমেদ বলেন, যদি আরও ১৫/২০ দিন এসব পেঁয়াজ খালাস না হয়ে বহির্নোঙরে জাহাজে পড়ে থাকে, তাহলে ঈদের সময় পেঁয়াজের দাম আরও বাড়বে।

এ সময় তোফায়েল আহমেদ বলেন, সবার সমন্বিত উদ্যোগে আশা করা যাচ্ছে, পেঁয়াজের আর দাম বাড়বে না এবং কিছুদিনের মধ্যেই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে যাবে।

ad