প্রধানমন্ত্রীর ট্রেনে হামলা: দণ্ডপ্রাপ্ত আসামির মৃত্যু

পাবনার ঈশ্বরদীতে ১৯৯৪ সালে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী ট্রেনে গুলি ও বোমা হামলার ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আব্দুল হাকিম (৬০) রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে।

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) দুপুর ১টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৩২ নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

গত ১০ আগস্ট হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে রামেক হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। মৃত কয়েদি হাকিম পাবনা পজলার ঈশ্বরদী উপজেলার বাবুপাড়া গ্রামের মৃত মহসিন আলী সরদারের ছেলে।

এ তথ্য নিশ্চিত করে রামেক হাসপাতালের প্রিজম সেলের ইনচার্জ মুনসুর জানান, রামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ট্রেনে হামলার ঘটনায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আব্দুল হাকিম মারা গেছে। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি পাবনা থেকে রাজশাহীতে এসেছিলেন। কারাগারে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

রামেক হাসপাতাল পুলিশ বক্সের ইনচার্জ এএসআই রফিকুল ইসলামও তার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ৩ জুলাই স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল-৩ ভারপ্রাপ্ত বিচারক এবং অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. রুস্তম আলী নয় জনকে মৃত্যুদণ্ড ও ২৫ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড রায় দেন। এছাড়াও এই মামলায় ১৩ জনকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয় ।

মন্তব্য লিখুন :