নোয়াখালীতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে অভিযান

জলাবদ্ধতা ও যানজট নিরসনের জন্য নোয়াখালী শহরে খাল ও সড়কের পাশে অবৈধভাবে গড়ে ওঠা তিন শতাধিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে অভিযান চলছে।

শনিবার সকাল থেকে শহরের সোনাপুরে এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়। প্রশাসনের এমন উদ্যোগে খুশি সাধারণ মানুষ। তবে মিশ্র প্রতিক্রিয়া ব্যবসায়ীদের। প্রশাসন বলছে যে কোনো উপায়ে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

জেলা শহরের আশপাশের প্রায় সব খালই অবৈধভাবে দখল হয়ে আছে। এসব খালের উপর স্থাপনা গড়ে উঠায় বর্ষায় স্থায়ী জলাবদ্ধতা দেখা দেয় নোয়াখালী পৌর শহরে। সড়ক ঘেষে দোকান গড়ে ওঠায় যানজট নিয়মিত সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। অবশেষে এসব স্থাপনা উচ্ছেদ করে পানির স্বাভাবিক প্রবাহ ঠিক রাখতে এবং যানজট নিরসনে শনিবার দুপুরে সোনাপুর জিরো পয়েন্ট থেকে প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় সড়ক ও সোনাপুর-সুবর্ণচর সড়কের পাশ থেকে শতাধিক অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দেয়।

এ সময় নোয়াখালী পৌরসভা, পিডিবি ও বাখারাবাদ গ্যাস ডিস্টিব্রিউশন কোম্পানীর কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া অভিযানে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটদের নেতৃত্বে সেনাবাহিনীর ৩৪ ইঞ্জিনিয়ারিং কনষ্ট্রাকশন ব্রিগেড ও পুলিশ সদস্যরা অংশগ্রহণ করেন।

এ ব্যপারে নোয়াখালী সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ জাকারিয়া জানান, নোয়াখালী শহরের দীর্ঘদিনের জলাবদ্ধতা ও যানজট সমস্যা থেকে মুক্ত করার লক্ষ্যে খাল ও সড়কের ওপর থেকে সব ধরণের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে খালের পানি প্রবাহ স্বাভাবিক করা হবে। এক্ষেত্রে কাউকে কোন প্রকার ছাড় দেয়া হবে না।

মন্তব্য লিখুন :