জামালপুরে শিক্ষকের উপর হামলা, বিচার দাবিতে মানববন্ধন

জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলার সাজিমারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে হামলা চালিয়ে প্রধান শিক্ষক আফরোজা সুলতানা বীনাকে পিটিয়ে আহত করার মূল হোতা সাবেক  ইউপি সদস্য হামিদুর রহমান ফর্সাসহ সকল আসামিকে দ্রুত সময়ের মধ্যে গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষকরা।

রবিবার (১ সেপ্টেম্বর) বিকালে উপজেলা পরিষদের সামনে বকশীগঞ্জ-কামালপুর সড়কে প্রায় ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে আগামী ৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে দোষীদের গ্রেপ্তার করা না হলে ৬ সেপ্টেম্বর এক ঘন্টা কর্মবিরতি এবং ১৫ তারিখের মধ্যে আসামিদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় না আনা হলে ১৬ সেপ্টেম্বর ৮ ঘন্টা কর্মবিরতিসহ বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা করেন শিক্ষক নের্তৃবৃন্দ।

বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি বকশীগঞ্জ উপজেলা শাখার ব্যানারে আয়োজিত ওই মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি ইসমাইল হোসেন, জেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি আবদুল মজিদ, সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জমান, সিনিয়র সম্পাদক হাবিবুল্লাহ, সাংগঠনিক সম্পাদক মান্নান চৌধুরী, এএইচএম কামরুজ্জামান লিটন, খন্দাকার আতাবুজ্জামান হেলাল, সাজিমারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক তারিকুজ্জামান ছোটন, মনীরা বেগম ও রাবেয়া বেগম প্রমূখ।

উল্লেখ্য, গত ২৯ আগস্ট সাজিমারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি পদে প্রার্থী সাবেক ইউপি সদস্য হামিদুর রহমান ফর্সা বিদ্যালয়ে হামলা চালিয়ে প্রধান শিক্ষক আফরোজা সুলতানাকে স্কুলের একটি কক্ষে নিয়ে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে হাত ভেঙে দেন। ওই ঘটনায় ফর্সা মেম্বারকে প্রধান আসামি দিয়ে অজ্ঞাত ১২ জনের বিরুদ্ধে বকশীগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন নির্যাতিত প্রধান আফরোজা।

গত ৩১ আগস্ট হামলার সাথে মর্মে সন্দেহে সাজু মোল্লা ও আব্দুল করিম মোল্লা নামে দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতদের রবিবার দুপুরে জামালপুর আদালতে হাজির করলে সংশ্লিষ্ট বিচারক তাদের কারাগারে পাঠনোর আদেশ দেন।

মন্তব্য লিখুন :