বেনাপোল বন্দরে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ

ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে ইন্টারনেট সার্ভারে কাজ না করায় বেনাপোল বন্দর দিয়ে দু’দেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধ রয়েছে।

শনিবার (২ নভেম্বর) সকাল থেকে রবিবার (৩ নভেম্বর) দুপুর পর্যন্ত এ আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধ রয়েছে। 

তবে এ পথে পাসপোর্ট যাত্রীদের যাতায়াত স্বাভাবিক রয়েছে।

এদিকে, সারাদিন আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম বন্ধ থাকায় দুই দেশের বন্দরে প্রবেশের অপেক্ষায় পণ্যবোঝাই কয়েক হাজার ট্রাক আটকা পড়েছে। এসব পণ্যের মধ্যে শিল্প কারখানা ও গার্মেন্টস ইন্ডাস্ট্রিজ’র কাঁচামাল, খাদ্যদ্রব্য ও পচনশীল পণ্যও রয়েছে। রপ্তানি পণ্যের মধ্যে রয়েছে পাট ও পাটজাত দ্রব্য, তৈরি পোশাক, মাছ ইত্যাদি।

বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট পুলিশ ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মহসিন খান বলেন, এ পথে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকলেও পাসপোর্ট যাত্রীদের যাতায়াত স্বাভাবিক রয়েছে।

বেনাপোল স্থলবন্দরের উপ-পরিচালক (ট্রাফিক) আব্দুল জলিল জানান, আগে ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম সম্পন্ন  হতো। বর্তমানে এ বন্দরে অটোমেশন পদ্ধতি চালু হওয়ায় অনলাইনে কাজ করা হচ্ছে। ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে সার্ভার সমস্যার কারণে পণ্য খালাস ও আমদানি-রপ্তানির কাজ বন্ধ আছে।