কুষ্টিয়ায় সন্তানকে হত্যা করে মায়ের আত্মহত্যা

কুষ্টিয়ায় নয় মাসের শিশুকে হত্যা করে এক মা গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার ভোরে শহরের থানাপাড়া পুরাতন বাঁধ এলাকার একটি বাড়ি থেকে মা আকলিমা খাতুনের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় মায়ের লাশের পাশেই পড়ে ছিল ৯ মাসের শিশু পুত্র জীমের মরদেহ।

নিহত আকলিমা খাতুন থানাপাড়া বাঁধ এলাকার অটো চালক রতন আলীর স্ত্রী।

এলাকাবাসী জানায়, গড়াই নদী সংলগ্ন থানাপাড়া পুরাতন বাঁধে স্বামী রতনের বাড়িতে বসবাস করতেন আকলিমা খাতুন। স্বামীর বাড়ির পাশেই বাবা মাজেদ আলীর বাড়ি। স্বামীর বাড়িতে সংস্কার কাজ করায় মঙ্গলবার রাতে বাবার বাড়িতে ৯ মাসের শিশু সন্তানকে নিয়ে ঘুমিয়ে ছিলেন। ভোরে এলাকাবাসী আকলিমার ঘরে ঢুকে দেখতে পান আকলিমা ঘরের ডাবের সাথে গলাই ফাঁস নিয়ে ঝুলছে। পাশেই বিছানায় শিশু জীমের নিথর দেহ পড়ে আছে। তাৎক্ষণিক স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ মা ও শিশু সন্তানের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। আকলিমা খাতুন মানুষিকভাবে অসুস্থ ছিলেন। ধারণা করা হচ্ছে আকলিমা তাঁর শিশু পুত্রকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর সে নিজেই গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে।

কুষ্টিয়া মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ সাব্বিরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, থানাপাড়া বাঁধের একটি বাড়ি থেকে মা ও শিশু সন্তানের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আকলিমা মানসিক রোগী ছিল। প্রথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে আত্মহত্যা করেছে। তবে তদন্ত প্রতিবেদন পেলে সবকিছু নিশ্চিত হওয়া যাবে।