চুয়াডাঙ্গায় মায়ের উপর অভিমানে শিশুর আত্মহত্যা

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার মোচাইনগরে মায়ের উপর অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে সোহাগ (১০) নামে এক শিশু আত্মহত্যা করেছে।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাত ১০টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

সোহাগ আলমডাঙ্গা উপজেলার গাংনী ইউনিয়নের মোচাইনগর গ্রামের নওদাপাড়ার নুরুজ জামানের ছেলে এবং মোচাইনগর হাফেজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র।

পরিবারের সদস্যরা জানান, বাড়িতে খেলা করার সময় ফার্নিচারের কাচ ভেঙে ফেলে শিশু সোহাগ। এ নিয়ে সোহাগের মা তাকে বকাঝকা করে। এতে মায়ের উপর অভিমান করে সকালে সবার অজান্তে ঘরের আড়ার সাথে ওড়না নিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায় সোহাগ। এসময় তার মা ঘটনাটি দেখে ফেলে দ্রুত ঝুলন্ত অবস্থায় সোহাগকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে রাত সাড়ে ১০টায় তার মৃত্যু হয়।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. সাজিদ হাসান জানান, পরিবারের সদস্যরা শিশুটিকে অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসে। রাত ১০টার দিকে শিশু সোহাগকে মৃত ঘোষণঅ করা হয়।

আলমডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম জানান, শিশুটিকে নানি বাড়িতে না নিয়ে যাওয়ায় মায়ের উপর অভিমান করে আত্মহত্যা করেছে। কোন অভিযোগ না থাকায় মরদেহ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।