শিশুসহ ৭ জনকে ধর্ষণের অভিযোগ বৃদ্ধর বিরুদ্ধে

পরপর ছয়টি মেয়েকে ধর্ষণের পর টাকা দিয়ে অপরাধ আড়াল করার অভিযোগ ছিল ৬০ বছরের বৃদ্ধ ছালাম উল্লার বিরুদ্ধে। এবার এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করেছে।

বুধবার (৭ অক্টোবর) তাকে ঢাকার সায়েদাবাদ থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। ওই বৃদ্ধের বাড়ি বাহুবল উপজেলার সম্ভুপুর গ্রামে।  

বাহুবল উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, গত ২৬ সেপ্টেম্বর মা-বাবা ঘরে না থাকার সুযোগে সম্ভুপুর আশ্রয়ণ প্রকল্পের আট বছর বয়সী একটি মেয়েকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যান ছালাম উল্লা। খবর পেয়ে উপজেলা ও পুলিশ প্রশাসনের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে যান। ওই রাতেই মেয়েটির বাবা থানায় মামলা দায়ের করেন।

বাহুবল মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রাকিবুল হাসান জানান, মামলা দাপ্তার করা হয়। বৃহস্পতিবার তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

যোগাযোগ করা হলে বাহুবলের তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) স্নিগ্ধা তালুকদার বলেন, মেয়েটির বাবা বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ও অস্বচ্ছল। তাই মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভবানীপুর আশ্রয়ণ প্রকল্পে তাকে একটি ঘর দেওয়া হয়েছিল।  

তিনি আরও বলেন, এর আগে ছালাম উল্লার বিরুদ্ধে আরও ছয়টি মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে। নির্যাতনের শিকার মেয়েদের পরিবারকে টাকা-পয়সা দিয়ে অপরাধ আড়াল করেছেন ওই বৃদ্ধ।