রেস্টহাউজে ছাত্রী ধর্ষণ, রেল কর্মচারী গ্রেপ্তার

কিশোরগঞ্জ রেলস্টেশনের ভিআইপি রেস্টহাউজের টয়লেটে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় মাহমুদুল হাসান সাগর (২৫) নামে এক রেল কর্মচারীকে আটক করেছেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) সদস্যরা।

শুক্রবার (০৮ অক্টোবর) দুপুরের দিকে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় র‌্যাব-১৪ কিশোরগঞ্জ ক্যাম্প।

সাগর কিশোরগঞ্জ শহরের পূর্ব তারাপাশা এলাকার মো. আব্দুল জলিলের ছেলে।

তিনি কিশোরগঞ্জ রেলওয়ের প্রকৌশল বিভাগের চতুর্থ শ্রেণির অস্থায়ী কর্মচারী। স্কুলছাত্রী সম্পর্কে তার খালতো বোন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার ভোররাত সাড়ে ৩টার দিকে নেত্রকোনা জেলার বারহাট্টার ঝাউয়াইল গ্রামে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব সদস্যরা। পরে ওই গ্রামের এক বাড়িতে আত্মগোপনে থাকা অবস্থায় সাগরকে আটক করা হয়।

র‌্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে।

র‌্যাব-১৪, সিপিসি-২ কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কমান্ডার বিএন এম শোভন খান জানান, পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আটক মাহমুদুল হাসান সাগরকে কিশোরগঞ্জ রেলওয়ে থানায় হস্তান্তরের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

গত ২০ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় বন্ধুর জন্মদিনের অনুষ্ঠানের কথা বলে খালাতো বোনকে ডেকে এনে কিশোরগঞ্জ রেলস্টেশনের দ্বিতীয় তলায় ভিআইপি রেস্টহাউজের টয়লেটে হাত-পা বেধে ধর্ষণ করে সাগর। এ ঘটনায় ওই দিনই রাতে ছাত্রীর ভাই বাদী হয়ে কিশোরগঞ্জ রেলওয়ে থানায় মাহমুদুল হাসান সাগরকে একমাত্র আসামি করে মামলা করেন।