অপুকে যে কারণে ডিভোর্স দিলেন শাকিব

Divorce letter, Shakib,
ad

বিনোদন ডেস্ক: বাংলা চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খান তার স্ত্রী ও চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসকে পাঠানো ডিভোর্স লেটারে দুইটি কারণ উল্লেখ করেছেন।

এর একটি কারণ হচ্ছে, অপুর ‘কথিত’ বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে মেলামেশা। শাকিব অভিযোগ করেন, অপু তাদের সন্তান জয়কে কাজের লোকের কাছে রেখে ‘কথিত’ বয়ফ্রেন্ডকে নিয়ে ভারতে বেড়াতে গিয়েছিলেন গত মাসে। শাকিব আরও দাবি করেন, অপু তার কোনো নির্দেশ মেনে চলেন না। তাই তিনি বিবাহবিচ্ছেদ চান।

এদিকে শাকিবের আইনজীবী জানিয়েছেন, বিয়ের দেনমোহর বাবদ ৭ লাখ টাকা অপুকে পরিশোধ করবেন শাকিব খান। এছাড়া তিনি একমাত্র সন্তান আব্রাম খান জয়ের ভরণ-পোষণ করবেন।

উল্লেখ্য, সোমবার (৪ ডিসেম্বর) ডিভোর্স লেটার অপু বিশ্বাস হাতে পাচ্ছেন। তবে এই ডিভোর্স কার্যকর হবে তিন মাস পর।

বর্তমানে হায়দ্রাবাদে অবস্থান করা শাকিব খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, ৩০ নভেম্বর হায়দ্রাবাদ যাওয়ার আগে ডিভোর্স পেপারে স্বাক্ষর করেছি।

অপু বিশ্বাসের কাছে এ প্রসঙ্গে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, আমি শুনেছি। তবে এখনও কোনো কাগজপত্র হাতে পাইনি।

গত এক মাস ধরেই এমন গুঞ্জন ঢাকাই সিনেমার আকাশে বাতাসে উড়ছিল। শোনা যাচ্ছিল, স্ত্রী ও চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসকে ডিভোর্স দিতে যাচ্ছেন দেশের তারকা অভিনেতা শাকিব খান।

যদিও এমন কথাকে ভিত্তিহীনই বলে এসেছেন অপু বিশ্বাস। এ নিয়ে গত মাসে একটি সংবাদ সম্মেলনও করেছিলেন তিনি। কিন্তু এসব করেও ডিভোর্স ঠেকাতে পারেননি অপু, এমন গুঞ্জনই এখন মিডিয়ায়।

দীর্ঘ আট বছর গোপনে সংসার করার পর তাদের কোলজুড়ে আসে সন্তান আব্রাহাম খান জয়। প্রায় বছরখানেক আগে অপু বিশ্বাস সংবাদ মাধ্যমে জানান তাদের বিয়ের খবর। এরপর থেকেই শাকিব-অপুর মধ্যে সম্পর্কটা ভালো যাচ্ছিল না।

পরিস্থিতি এমন অবস্থায় পৌঁছায় যে শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস নিজেদের মধ্যে মুখ দেখাদেখি বন্ধ করে দেন। শুধু ছেলে আব্রামের কারণে মাঝেমধ্যে দেখা হলেও কথা হয়নি দুজনের। এবার তাদের সেই টানাপোড়েনের চূড়ান্ত পরিণতি ঘটেছে। শাকিব খান আর অপু বিশ্বাসের আনুষ্ঠানিকভাবে বিবাহবিচ্ছেদ ঘটছে।

ad