পরকীয়ায় জড়িয়েছিলেন যে বলিউড নায়িকারা

rani and sri
ad

বিনোদন ডেস্ক: বলিউডে একাধিক বিয়ের বিষয়টি স্বাভাবিক। অনেক বড় বড় তারকারাও করেছেন একাধিক বিয়ে। তেমনি বলিউডেও পরকীয়া সম্পর্কে জড়ানোর নজিরও খুব কম নেই। বিশেষ করে নায়িকাদের মধ্যে এ প্রবণতা একটু বেশি। অনেক খ্যাতিমান নায়িকাও পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন। তাদের মধ্যে কেউ কেউ ঘর বাঁধতে পারলেও বেশীরভাগেরই সম্পর্ক কোনো পরিণতি পায়নি।

তাহলে দেখে নেওয়া যাক বলিউডের যে নায়িকারা পরকীয়ায় জড়িয়েছিলেন:

শ্রীদেবী: বলিউডের প্রথম সুপারস্টার নায়িকা তিনি। ক্যারিয়ার শুরুর পর মিঠুন চক্রবর্তীর সাথে সম্পর্কে জড়ান তিনি। এরপর তাদের সম্পর্ক ভেঙে গেলে প্রযোজক বনি কাপুরের সাথে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন শ্রীদেবী। তখন বনি কাপুর তার প্রথম স্ত্রী অর্থাৎ অর্জুন কাপুরের মায়ের সাথে সংসার করছিলেন। পরবর্তীতে অর্জুন কাপুরের মাকে তালাক দিয়ে শ্রীদেবীকে বিয়ে করেন বনি কাপুর।

কঙ্গনা রানওয়াত: বর্তমানে পরকীয়ার জন্য সবচেয়ে বেশি আলোচিত কঙ্গনা রানওয়াত। এই নায়িকা একবার নয় দুই দুই বার জড়িয়েছেন পরকীয়ায়। প্রথমবার আরও প্রায় ৮ বছর আগে তিনি আদিত্য পাঞ্চোলির সাথে সম্পর্কে জড়ান। সেই সম্পর্ক ভেঙে গেলে তিনি আবার হৃত্মিক রোশনের সাথে সম্পর্কে জড়ান। যে কারণে হৃত্মিকের সাথে স্ত্রী সুজানার ছাড়াছাড়ি হয়। যদিও এখন কঙ্গনার সাথে সম্পর্ক নেই হৃত্মিকেরও।

প্রাচী দেশাই: কয়েক বছর আগে বেশ আলোচনা তুলেই বলিউডে আসেন প্রাচী। বেশ ভালই কাটছিল তার। ‘বোল বচ্চন’ ছবির শুটিংয়ের সময় তিনি পরিচালক রোহিত শেট্টির সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন। পরে অবশ্য তাদের সম্পর্ক ভেঙে যায়।

সুস্মিতা সেন: পরিচালক বিক্রম ভট্টের সঙ্গে বারবার নাম জড়িয়েছে সুস্মিতা সেনের। প্রাক্তন মিস ইউনিভার্সের সঙ্গে নাকি লিভ-ইনও করতেন বিক্রম। এর জেরেই বিক্রমের বিচ্ছেদ হয়ে যায় স্ত্রী অদিতির সঙ্গে। পরে অবশ্য সুস্মিতার সঙ্গেও স্থায়ী হয়নি সম্পর্ক।

রানী মুখার্জী: এক সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় নায়িকা ছিলেন রানী। তাকে ইয়াশ রাজের ব্যানারেই বেশি কাজ করতে দেখা যেত। এরই সূত্রে পরিচয় হয় আদিত্য রাজের সাথে। এর জেরে প্রথম স্ত্রী পায়েল খন্নার সঙ্গে দীর্ঘদিনের বিবাহিত জীবনে ছেদ পড়ে আদিত্য চোপড়ার। পরবর্তীতে রানিকে বিয়ের করে নেন আদিত্য।

হেমা মালিনী: ধর্মেন্দ্রর আগেই স্ত্রী ও সন্তান ছিল। এরপরও তার সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন বলিউড কুইনখ্যাত হেমা। যার জেরে সানি দেওলের মায়ের সাথে ছাড়াছাড়ি হয়ে যায় ধর্মেন্দ্রর। পরে হেমাকে বিয়ে করলেও তাদের সংসার বেশিদিন টিকেনি।

ad