শ্রুতির সাথে পরকীয়াই ধানুশের সংসার ভাঙার কারণ!

তারকাদের সংসার ভাঙা যেন অস্বাভাবিক কিছু নয়। বরং কারো সংসার টিকে গেলে সেটা হয় অস্বাভাবিক। যেমনটা হয়েছিল ধানুশ ও ঐশ্বরিয়ার ক্ষেত্রে। মাত্র ২১ বছর বয়সে ২ বছরের বড় ঐশ্বরিয়াকে বিয়ে করেন ধানুশ। এরপর টানা ১৮ বছর সংসার। তবে গতকাল হঠাৎই এলা দুঃসংবাদ, ঘোষণা দিয়ে আলাদা হয়ে গেছেন এ দম্পতি।


ভারতীয় মিডিয়ার খবরে বলা হয়,  দক্ষিণের সব থেকে বড় সুপারস্টার রজনীকান্তের মেয়ে ঐশ্বর্যের সঙ্গে সম্পর্ক শেষ করলেন ধানুশ। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে নিজেদের আলাদা হওয়ার খবর জানান তিনি। ১৮ বছর ধরে বিবাহিত জীবনে থাকার পর আলাদা থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ধানুশ ও ঐশ্বর্য। 


এই বিচ্ছেদের কারণ স্পষ্ট না হলেও বেশ কয়েক বছর আগের একটি ‘গুজব’-এর কথা মনে পড়ে যেতে পারে অনেকেরই। কমল হাসানের মেয়ে শ্রুতি হাসানের সঙ্গে ধানুশের ‘বিবাহ-বহির্ভূত’ সম্পর্কের জন্য নাকি ধানুশ-ঐশ্বর্যর বিয়ে ভাঙতে বসেছিল। তবে কি এ বার মাটিচাপা থাকা আগুন ফের জ্বলে উঠেছে? শ্রুতির জন্যই কি আলাদা হল ধানুশ এবং ঐশ্বর্য?


তবে সে সময় ঐশ্বর্য জানান, তার স্বামী এবং শ্রুতিকে নিয়ে যে সমস্ত কথাবার্তা রটানো হচ্ছে, তা ভিত্তিহীন। তার পরেই শান্তনু হাজারিকার সঙ্গে শ্রুতির সম্পর্ক অনুরাগীদের চোখের সামনে তুলে ধরার পরে ধানুশ আর শ্রুতির সম্পর্ক নিয়ে সমস্ত কথাবার্তা বন্ধ হয়ে যায়।


তবে গতকাল ধানুশের বিচ্ছেদ ঘোষণার পরে আবার সামনে এসেছে সেই ইস্যু। বলাবলি হচ্ছে শ্রুতির সাথে সম্পর্কই এই বিচ্ছেদের কারণ। যদিও এখনো বিষয়টি পরিস্কার নয়।