উ. কোরিয়া উপকূলে যুক্তরাষ্ট্রের জঙ্গি ও বোমারু বিমান!

Bomber biman
ad

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: উত্তর কোরিয়ার পূর্ব উপকূলের আন্তর্জাতিক আকাশসীমায় মহড়া দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি বোমারু ও জঙ্গিবিমান।

ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানোর হুমকি ও আবারও পরমাণু বোমার পরীক্ষা চালানো হয়েছে এমন আশঙ্কায় শনিবার কিছু জঙ্গিবিমানকে পাশে নিয়ে মহড়া দেয় যুক্তরাষ্ট্রের বোমারু বিমান বি-১বি।

এর আগে, উত্তর কোরিয়ার একটি পারমাণবিক স্থাপনার আশেপাশের এলাকায় মৃদু ভূমিকম্প অনুভূত হয়। এর থেকে ধারণা করা হয় তারা আবারও পরমাণু বোমার পরীক্ষা চালিয়েছে। যদিও উত্তর কোরিয়া এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেনি।

মহড়ার ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগন জানিয়েছে, উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কর্মসূচির জবাবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অনেকগুলো বিকল্প ভেবে রাখতে হচ্ছে। এর অংশ হিসেবে হঠাৎ বিমানের এই মহড়া।

উত্তর কোরিয়া একের পর এক পারমাণবিক বোমা ও ব্যালেস্টিক মিসাইলের পরীক্ষা শুরুর পর থেকে গত কয়েক মাস ধরেই যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তাদের কথার লড়াই চলছে, যা নতুন মাত্রা পেয়েছে জাতিসংঘে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ভাষণের পর।

গত সপ্তাহে প্রথমবারের মতো জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে বক্তৃতা দিতে দাঁড়িয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনকে আখ্যায়িত করেন ‘রকেটম্যান’ নামে। তিনি বলেন, বাধ্য হলে যুক্তরাষ্ট্র উত্তর কোরিয়াকে ‘পুরোপুরি ধ্বংস’ করে দেবে।

তার এই হুমকির জবাবে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টকে ‘চরম মূল্য’ দিতে হবে বলে পাল্টা হুমকি দেন কিম। এ সময় তিনি ট্রাম্পকে বিকারগ্রস্ত উন্মাদ বুড়ো বলে অ্যাখ্যায়িত করেন।

অন্যদিকে, জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনের ভাষণে উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রি ইয়ং হো যুক্তরাষ্ট্রে ক্ষেপনাস্ত্র হামলার হুমকি দেন।

ad