কুসিক নির্বাচন চলছে, অনিয়মের অভিযোগ বিএনপি প্রার্থীর

comilla election
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ চলছে। তবে বিএনপির প্রার্থী সাবেক মেয়র মনিরুল হক সাক্কু অভিযোগ তুলেছেন দুইটি ভোটকেন্দ্রে বিএনপির এজেন্টদের ঢুকতে দেওয়া হয়নি।

বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে একযোগে ১০৩টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত।

এদিকে, ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমা কুমিল্লা মর্ডান স্কুলে নিজের ভোট দিয়ে সার্বিক পরিস্থিতিতে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

তিনি বলেন, বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে দেখলাম- সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশ বিরাজ করেছে। আশা করি দিনের বাকি অংশেও এ পরিবেশ থাকবে।  ফলাফল যাই হোক আমরা তা মেনে নিব।

বিএনপি প্রার্থী সাক্কু বলেন, একটি কেন্দ্রে আগে থেকেই সব ব্যালটে সিল দিয়ে রাখা হয়েছে, দুইটি কেন্দ্রে আমার কর্মী ও পোলিং এজেন্টদের ঢুকতে দেয়া হয়নি। আমি তাদের পুলিশের সহযোগিতায় কেন্দ্রে ঢুকিয়ে দিয়ে এসেছি।

কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে এবার মেয়র পদে সাক্কু ও সীমা ছাড়াও আছেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) শিরিন আক্তার ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মামুনুর রশীদ। এ ছাড়া কাউন্সিলর প্রার্থী আছেন ১১৪ ও সংরক্ষিত কাউন্সিল প্রার্থী ৪১ জন।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা যায়, সিটি করপোরেশনে মোট ভোটার সংখ্যা দুই লাখ সাত হাজার ৫৬৬ জন। এর মধ্যে নারী ভোটারের সংখ্যা বেশি। ওই সিটিতে নারী ভোটারের সংখ্যা এক লাখ পাঁচ হাজার ৪৪৭ জন। পুরুষ ভোটারের সংখ্যা এক লাখ দুই হাজার ১১৯ জন। ২৭টি ওয়ার্ড ও নয়টি সংরক্ষিত আসন আছে। ভোটকেন্দ্র আছে ১০৩টি।

ad