নিরাপত্তা ঝুঁকি: লন্ডনে বন্ধ হচ্ছে উবার

London, Off, Uber,
ad

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: নাগরিকদের জন্য নিরাপত্তা ঝুঁকি তৈরি করতে পারে এমন আশঙ্কায় লন্ডন পরিবহন নিয়ন্ত্রক সংস্থা কর্তৃপক্ষ স্মার্টফোনের অ্যাপ-ভিত্তিক ট্যাক্সি সেবার নেটওয়ার্ক উবারের লাইসেন্স বাতিল করায় উবার লন্ডনের রাস্তায় চলাচলের লাইসেন্স হারাচ্ছে।

শুক্রবার (২২ সেপ্টেম্বর) উবার কর্তৃপক্ষকে এ সিদ্ধান্তের কথা জানায় লন্ডন পরিবহন কর্তৃপক্ষ।

রয়টার্স জানায়, নিরাপত্তা সংক্রান্ত কয়েকটি ইস্যুতে দায়িত্বের দুর্বলতার জন্য উবারের বিরুদ্ধে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ট্রান্সপোর্ট ফর লন্ডন। তবে উবার কর্তৃপক্ষ ট্রান্সপোর্ট অথরিটির এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করতে পারবে এবং তার নিষ্পত্তির আগ পর্যন্ত লন্ডনে উবারের ট্যাক্সি সেবায় বাধা নেই।

লন্ডন পরিবহন নিয়ন্ত্রক সংস্থা বলছে, উবারের করপোরেট দায়িত্বশীলতাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বড় ধরনের ঘাটতি রয়েছে, যা নাগরিকদের জন্য নিরাপত্তা ঝুঁকি তৈরি করতে পারে।

লন্ডনের মেয়র সাদিক খান বলেন, লন্ডন পরিবহন কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তকে আমি পুরোপুরি সমর্থন করি। জনগণের নিরাপত্তা নিয়ে ন্যূনতম ঝুঁকি থাকলে উবারের নিবন্ধন নবায়ন করা হবে ভুল সিদ্ধান্ত।

তবে উবার ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়ে দাবি করেছে, ২০১২ সালে লন্ডনে উবার চালু হয়েছে। বর্তমানে প্রায় ৩৫ লাখ যাত্রী এই সেবা নিচ্ছে। ৪০ হাজার চালক এই সেবার সঙ্গে জড়িত। এমন সিদ্ধান্ত বিশাল এই নেটওয়ার্কের জন্য বড় আঘাত এবং এর ফলে লন্ডনে ৪০ হাজারেরও বেশি ড্রাইভার ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

উবারের লাইসেন্সের মেয়াদ শেষ হবে ৩০ সেপ্টেম্বর। তবে আগামী ২১ দিনের মধ্যে উবার এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করতে পারবে।

উল্লেখ্য, বিশ্বের বিভিন্ন বড় শহরে ব্যাপকভাবে জনপ্রিয় হলেও বিভিন্ন দেশে আইনি জটিলতা ও সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে উবারকে। লন্ডনেও উবারের কাজের ধরন ও শর্ত নিয়ে বিভিন্ন শ্রমিক ইউনিয়ন, ব্ল্যাক ক্যাবের চালক ও আইনপ্রণেতাদের আপত্তি রয়েছে। যুক্তরাজ্যের আগে ডেনমার্ক, হাঙ্গেরিসহ বিভিন্ন দেশ এবং যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন রাজ্যে নিয়ন্ত্রক সংস্থার সঙ্গে আইনি লড়াইয়ে হারতে হয়েছে উবারকে।

ad