বান্দরবানে পাহাড় ধসে নিহত ৪

bandarban
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: বান্দরবানে দুইদিনের টানা বৃষ্টির ফলে পাহাড় ধসে নারী ও শিশুসহ চারজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার (৩ জুলাই) শহরের কালাঘাটা বড়ুয়ার টেকে ও লামা উপজেলার সরই ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি কালাইয়া পাড়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এর মধ্যে লামা উপজেলায় এক পরিবারের শিশুসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে।  কালাঘাটা বড়ুয়ায় নিহত হয়েছে এক নারী।

মৃতরা হলেন কালাইয়া পাড়ার বাসিন্দা মো. মাঈন উদ্দিনের ছেলে মো. হানিফ (৩০), হানিফের স্ত্রী রেজিয়া খাতুন (২৫), মেয়ে হানিফা আক্তার (৩) এবং কালাঘাটা বড়ুয়ার মিলন দাসের স্ত্রী প্রতিমা রানী (৩৫)।

জানা যায়, কালাঘাটা বড়ুয়ায় বসতবাড়ির ওপর পাহাড় ধসে পড়লে মাটির নিচে চাপা পড়ে প্রতিমা রানী। পরে দমকল বাহিনীর কর্মীরা এক ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে মাটির নিচ থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করেন।

দমকল বাহিনীর বান্দরবানের উপ-পরিচালক ইকবাল সোবাহান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পাহাড় ধসের পর মাটি খুঁড়ে একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

অপরদিকে, দুপুরে সরই ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি কালাইয়া পাড়ায় মাঈন উদ্দিনের বসতঘরের ওপর আচমকা পাহাড় ধসে পড়ে। এতে ঘুমন্ত মো. হানিফ, তার স্ত্রী ও সন্তান মারা যায়। খবর পেয়ে তাদের মরদেহ উদ্ধার করে স্থানীয়রা।

লামা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূর-এ-জান্নাত রুমি বলেন, পাহাড় ধসে শিশুসহ তিনজনের মৃত্যুর সংবাদ পেয়েছি। ঘটনাস্থলে যাচ্ছি আমরা।

ad