ভারতের সঙ্গে আমাদের নির্বাচন নিয়ে কথা হয়নি: কাদের

India, Election, Kader
ad

জাগরণ ডেস্ক: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ভারতে গিয়ে আমরা আমাদের নিজেদের আগ্রহের বিষয় নিয়ে কথা বলেছি, আমরা নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গেও কথা বলেছি। ভারতের অনেক গুণী ব্যক্তি, মন্ত্রীদের সঙ্গে দেখা হয়েছে। কিন্তু সেখানে আমাদের নির্বাচন নিয়ে কোনো কথা হয়নি।

বৃহস্পতিবার (১২ জুলাই) বেলা সাড়ে ১১টায় পটিয়া বাইপাস সড়কের নির্মাণকাজের অগ্রগতি সরেজমিনে দেখতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের ভারত সফর প্রসঙ্গে সেতুমন্ত্রী বলেন, আমি বাংলাদেশেও নেমেই বলেছিলাম, নির্বাচন নিয়ে ভারতীয় কারো সঙ্গেই আমার কথা হয়নি। কথা হয়েছে রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়ে। রোহিঙ্গা সংকটে তাদের কাছে সাহায্য চাওয়া হয়েছে। তারা সহযোগিতা করছে, যেন রোহিঙ্গারা নিরাপদে নিজেদের দেশে ফিরে যেতে পারে, তাই নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এছাড়া তিস্তার পানি নিয়েও আলোচনা হয়েছে। তবে কোনো রাজনীতি নিয়ে আলোচনা করতে ভারতে যাইনি।

তিনি বলেন, আমরা আমন্ত্রণের ভিত্তিতে ওখানে গিয়েছি। বিএনপির মতো যাইনি। তবে বিএনপি দাওয়াতে যায়নি, নিজেরা নিজেরা গেছে। এটা যেচে যাওয়া। আমরা ওইভাবে যাইনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি যতই রঙিন স্বপ্ন দেখুক আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে ২০০১ সালের সেই নীল নকশার নির্বাচন বাংলাদেশে আর হবে না। সব দলকে নির্বাচনে আনতে উদ্যোগ নেবে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করা হলে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড থেকে শুরু করে নির্বাচনী কার্যক্রম পরিচালনা করবে নির্বাচন কমিশন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, নির্বাচনের ব্যাপারে সরকারের করণীয় কিছু থাকবে না। তবে নির্বাচন কমিশন যে বিষয়ে সহযোগিতা চাইবে, সরকার সেটা করে দেবে।

তিনি আরও বলেন, জানুয়ারি মাসের মধ্যেই চট্টগ্রামের পটিয়ার বাইপাস সড়কের কাজ শেষ হলে দক্ষিণ জেলার যোগাযোগ ব্যবস্থার আমূল পরিবর্তন আসবে।

সড়ক ও জনপথ বিভাগ সূত্র জানায়, গত বছরের শেষের দিকে পটিয়া বাইপাস সড়কের নির্মাণকাজের উদ্বোধন করা হয়। সাড়ে পাঁচ কিলোমিটার দীর্ঘ সড়কটি নির্মাণ করতে ব্যয় হচ্ছে ১০৩ কোটি টাকা। আগামী বছরের জুনে প্রকল্প বাস্তবায়ন হওয়ার কথা। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হলে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার সড়কের পটিয়া সদর অংশে ভয়াবহ যানজট থেকে রক্ষা পাবে যাত্রীরা।

ad