মিয়ানমারের বিরুদ্ধে জাতিসংঘের প্রস্তাব পাস

Myanmar, opposition, UN, proposal, pass,
ad

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে চালানো নিধনযজ্ঞ ও তাদের মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনায় জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে একটি প্রস্তাব পাস হয়েছে।

মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় কাউন্সিলের ৩৩ সদস্য দেশের ‘হ্যাঁ’ ভোটে প্রস্তাবটি পাস হয়েছে।

বরাবরের মতো চীন মিয়ানমারের পক্ষ অবলম্বন করে ‘না’ ভোট দিয়েছে। অন্য দেশ দুটি হলো ফিলিপাইন ও বুরুন্ডি। ভোট দেয়া থেকে বিরত থেকেছে ভারতসহ নয়টি দেশ। প্রস্তাব পাসের ভোট প্রক্রিয়ায় মোট ৪৫টি দেশ অংশ নেয়।

বাংলাদেশের অনুরোধে জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিল ‘মিয়ানমারের রাখাইনে রোহিঙ্গা মুসলিম জনগোষ্ঠী ও অন্যান্য সংখ্যালঘুদের মানবাধিকার পরিস্থিতি’ শীর্ষক বিশেষ অধিবেশনটি ডেকেছিল। অধিবেশনে বাংলাদেশ রোহিঙ্গাদের বিষয়ে একটি প্রস্তাবের খসড়া দেয়।

জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের বিশেষ অধিবেশনে সংস্থার মানবাধিকার প্রধান জেইদ রাদ আল-হুসেইন বলেছেন, রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যা চালানো হচ্ছে-এই তথ্য অস্বীকারের আর কোনো সুযোগ নেই। প্রাণভয়ে রোহিঙ্গাদের পালিয়ে বাংলাদেশে যাওয়া এখনও অব্যাহত রয়েছে। মিয়ানমারের নিরাপত্তা পরিস্থিতি কঠোর পর্যবেক্ষণের আওতায় না এনে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া ৬ লাখ ২৬ হাজার রোহিঙ্গার একজনকেও ফেরত পাঠানো উচিত হবে না

তিনি বলেন, সেখানে ভয়ংকর সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে এবং এলোমেলোভাবে গুলি চালিয়ে ক্ষমতার অপব্যবহার করে হত্যা করা হয়েছে। সেখানে গ্রেনেড ব্যবহার করা হয়েছে, খুব কাছ থেকে গুলি চালানো হয়েছে, ছুরিকাহত করা হয়েছে এবং পরিবারের লোকজনকে ভেতরে রেখেই বাড়িঘরে আগুন দেয়া হয়েছে। শিশুসহ রোহিঙ্গারা শারীরিক এবং মানসিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। নির্যাতন, ধর্ষণ ও বলপ্রয়োগ করে পালিয়ে যেতে বাধ্য করা এবং প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে এলাকা রোহিঙ্গা শূন্য করা হয়েছে।

ad