যুক্তরাজ্যের নির্বাচনে বাঙালী তিন কন্যার জয়

UK, elections, wins, Bengali, 3 daughters,
ad

জাগরণ ডেস্ক: যুক্তরাজ্যের মধ্যবর্তী সাধারণ নির্বাচনে জয়ী হয়েছেন বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত তিন প্রার্থী টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক, রুপা হক ও রুশনারা আলী। রুপা হক ও রুশনারা আলী তৃতীয়বার আর টিউলিপ সিদ্দিক দ্বিতীয়বারের মতো লেবার পার্টি থেকে এমপি নির্বাচিত হলেন। এ বাঙালী তিন কন্যা যুক্তরাজ্যে সদ্য ভেঙে দেওয়া পার্লামেন্টে বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত এমপি ছিলেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাতনি টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক হ্যাম্পস্টেড অ্যান্ড কিলবার্ন আসনে, রুশনারা আলী বেথনাল গ্রিন অ্যান্ড বো আসনে ও রূপা হক ইলিং সেন্ট্রাল অ্যান্ড অ্যাকটন আসনে জয়ী হন।

স্কাই নিউজ জানায়, লন্ডনের সবচেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ আসনগুলোর অন্যতম ইলিং সেন্ট্রাল অ্যান্ড অ্যাকটন আসনে লেবার প্রার্থীর রুপা ৩৩ হাজার ৩৭ ভোট পেয়েছেন। তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী কনজারভেটিভ দলের জে মোরিসি পেয়েছেন ১৯ হাজার ২৩০ ভোট। গতবার রুপা জিতেছিলেন মাত্র ২৭৪ ভোটের ব্যবধানে। আর এবার প্রতিদ্বন্দ্বীর চেয়ে প্রায় ১৪ হাজার বেশি ভোট পেয়েছেন। ২০১৫ সালে মাত্র ১ হাজার ১৩৮ ভোটের ব্যবধানে প্রথমবার এমপি নির্বাচিত হন টিউলিপ। সেই ব্যবধান বেড়ে হলো ১৫ হাজার ৫৬০।

টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক লন্ডনের মিটচ্যামে ১৯৮২ সালে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি লন্ডনের কিংস কলেজ থেকে ইংরেজি সাহিত্যে এবং রাজনীতি, নীতি ও সরকার বিষয়ে দুইটি মাস্টার্স ডিগ্রি লাভ করেন। ২০১৫ সালে টিউলিপ নির্বাচিত হওয়ার পর তিনি লেবার পার্টি নেতা জেরেমি করবিনের ছায়া মন্ত্রিসভায় নিযুক্ত হন। চলতি বছরের শুরুতে পার্লামেন্টে ব্রেক্সিট বিলের বিরুদ্ধে দৃঢ় অবস্থান নিয়েছিলেন তিনি। এ কারণে তিনি লেবার পার্টির ছায়া মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করেন।

রুশনারা আলী ২০১০ সালে প্রথম ব্রিটিশ পার্লামেন্ট সদস্য নির্বাচিত হন। তিনিই প্রথম বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ পার্লামেন্ট সদস্য। ২০১৫ সালে তিনি পুননির্বাচিত হন। তার পূর্বসূরীরা বাংলাদেশের সিলেট জেলার বিশ্বনাথ উপজেলার বাসিন্দা ছিলেন।

আর কিংসটন ইউনিভার্সিটির সমাজবিজ্ঞানের জ্যেষ্ঠ শিক্ষক রূপা লন্ডনে জন্মগ্রহণ করেন। বাংলাদেশে তার আদি বাড়ি পাবনায়।

ad