শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে একাত্মতা প্রকাশ করলেন সোহেল তাজ

Sohel taj
ad

জাগরণ ডেস্ক: বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী, মহান মুক্তিযুদ্ধের সফল নেতৃত্ব দানকারী ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর জাতীয় নেতা তাজউদ্দীন আহমদের ছেলে এবং সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজিম আহমেদ সোহেল তাজ নিরাপদ সড়কের দাবিতে সারাদেশে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের প্রতি একাত্মতা প্রকাশ করেছেন।

বৃহস্পতিবার (২ আগস্ট) বাংলাদেশ সময় দুপুর ১২টা ৩৬ মিনিটে নিজের ভেরিফাইড পেজে দেয়া পোস্টে তিনি একাত্মতা প্রকাশ করেন।

তিনি লিখেছেন, আমি আমার শিক্ষার্থী ভাই বোন, অভিভাবক এবং সকল সাধারণ মানুষের নিরাপদ সড়কের দাবির tajসাথে একত্মতা প্রকাশ করছি ও সমর্থন জানাচ্ছি।

সোহেল তাজ লিখেছেন, নিরাপদ সড়ক এবং সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার বিষয়ে আমি অনেক আগে থেকেই বলে আসছি এবং এই বিষয় নিয়ে আমি বেশ কিছু উদ্যোগও নিয়েছিলাম। প্রয়োজনে আমি সরকারকে এর সমাধানে সহায়তা করতে প্রস্তুত। ২০১০ সালে আমি বলেছিলাম, সড়ক দুর্ঘটনা বাংলাদেশের জন্য একটি নীরব সুনামি।

এর আগে বুধবার (১ আগস্ট) শিক্ষার্থীদেরকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা নির্যাতন করছে- এমন কয়েকটি ফটো Taj 2আপলোড দিয়ে তিনি ক্যাপশনে লেখেন, এগুলো কি হচ্ছে?

উল্লেখ্য, ২০১০ সালের ১৬ অক্টোবর গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আয়োজিত গাড়িচালকদের দক্ষতা ও সচেতনতা বৃদ্ধিমূলক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় সোহেল তাজ বলেছিলেন, বাংলাদেশের জন্য সড়ক দুর্ঘটনা একটি নীরব সুনামি, যার ভয়াবহতাও অনেকটা নীরব। একটি দেশে যুদ্ধে যত মানুষ মারা যায়, বাংলাদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় তার চেয়েও বেশি মানুষ মারা যায়। সড়ক দুর্ঘটনা রোধের জন্য সামাজিক সচেতনতা জরুরি। সড়ক দুর্ঘটনা রোধ করার জন্য সামাজিক সচেতনতার পাশাপাশি সরকারকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে।

ad