সাগর-রুনি হত্যা মামলার প্রতিবেদন ৪৭ বারের মতো পেছালো

Sagor-Runi
ad

জাগরণ ডেস্ক: সাংবাদিক দম্পতি সাগর সরওয়ার ও মেহেরুন রুনি হত্যা মামলায় তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল ৪৭ বারের মতো পিছিয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের পরবর্তী তারিখ আগামী ২৬ জুলাই।

রবিবার (১১ জুন) সকালে ঢাকার মহানগর হাকিম খুরশীদ আলম এ দিন ধার্য করেন।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি রাতে রাজধানীর পশ্চিম রাজাবাজারে সাংবাদিক দম্পতি মাছরাঙা টেলিভিশনের বার্তা সম্পাদক সাগর সরওয়ার ও এটিএন বাংলার জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক মেহেরুন রুনি নিজ বাসায় নির্মমভাবে খুন হন। পরদিন ভোরে তাঁদের ক্ষত-বিক্ষত লাশ উদ্ধার করা হয়।

চাঞ্চল্যকর এই হত্যাকাণ্ডের পর মেহেরুন রুনির ভাই নওশের আলম রোমান শেরেবাংলা নগর থানায় একটি মামলা করেন। ওই মামলার ধারাবাহিকতায় শেরেবাংলা নগর থানার হাত ঘুরে হত্যাকাণ্ডের ঘটনা তদন্তের দায়িত্ব পায় ডিবি। কিন্তু দুই মাসের বেশি সময় তদন্ত করে ডিবি রহস্য উদঘাটনে ব্যর্থ হয়।

পরে হাইকোর্টের নির্দেশে একই বছরের ১৮ এপ্রিল হত্যা মামলাটির তদন্তভার র‌্যাবের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এরপর থেকেই র‌্যাব এই মামলাটি তদন্ত করছে এবং মামলার তদন্তের বিষয়ে একাধিকবার অগ্রগতি আদালতকে জানিয়েছে। কিন্তু এখনো পূর্ণাঙ্গ কোন তদন্ত প্রতিবেদন র‌্যাব আদালতে দাখিল করতে পারেনি।

সাগর-রুনি হত্যা মামলায় আটজন সন্দেহভাজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তারা হচ্ছে- রফিকুল ইসলাম, বকুল মিয়া, মো. সাইদ, মিন্টু, কামরুল হাসান ওরফে অরুণ, সাগর-রুনির ভাড়া বাসার নিরাপত্তা প্রহরী এনামুল, পলাশ রুদ্র পাল এবং নিহত দম্পতির বন্ধু তানভীর রহমান। এদের মধ্যে থেকে তানভীর রহমান ও পলাশ রুদ্র পাল সুপ্রিম কোর্টের দেয়া জামিনে রয়েছে।

ad