কাল পাবনায় যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

Tomorrow, going to Pabna, Prime Minister,
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: আগামীকাল পাবনায় যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এদিন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের দ্বিতীয় ইউনিটে প্রথম কংক্রিট ঢালাই কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন তিনি। এর মাধ্যমে পারমাণবিক বিদ্যুৎ উৎপাদনের যুগে আরও একধাপ এগিয়ে অনন্য উচ্চতায় আসীন হবে বাংলাদেশের নাম।

সফরসূচি থেকে জানাগেছে, শনিবার (১৪ জুলাই) বেলা সাড়ে ১১টায় রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের দ্বিতীয় চুল্লির প্রথম কংক্রিট ঢালাই উদ্বোধন ও সংক্ষিপ্ত সুধী সমাবেশে বক্তব্য দেবেন।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি থাকবেন রাশান ফেডারেশনের উপ-প্রধানমন্ত্রী মি. ইউরি ইভানোভিচ বোরিসভ। শুভেচ্ছা বক্তব্য দিবেন আইএইএ’র পরিচালক মি. দোহী হান। স্বাগত বক্তব্য দেবেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আনোয়ার হোসেন।

প্রধানমন্ত্রী বেলা সাড়ে ৩টার দিকে পাবনা পুলিশ লাইন মাঠে পাবনা জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির ভাষণ দেবেন। সেখানে তিনি ৫০টি বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও উদ্বোধন করবেন।

এদিকে, প্রধানমন্ত্রীর পাবনায় আগমনকে কেন্দ্র করে জেলাজুড়ে এখন সাজ সাজ রব। ব্যানার, ফেস্টুন, আলোকজসজ্জা আর তোরণে পাবনা সেজেছে নতুন সাজে। পাবনা সার্কিট হাউজ, পুলিশ লাইনস মাঠে সৌন্দর্য বর্ধনসহ চলছে শেষ সময়ের প্রস্তুতি।

প্রধানমন্ত্রীর আগমন ঘিরে দলীয় নেতা-কর্মীসহ সাধারণ মানুষের মাঝে বিরাজ করছে উৎসাহ-উদ্দীপনা। পাবনাবাসীর জন্য প্রধানমন্ত্রী আরও নতুন উন্নয়নের ঘোষণা দেবেন, এমন প্রত্যাশা সকলের।

 Tomorrow, going to Pabna, Prime Minister,

পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পাবনা সদর আসনের সংসদ সদস্য গোলাম ফারুক প্রিন্স বলেন, প্রধানমন্ত্রী পাবনা সফর ঘিরে দলীয় নেতা-কর্মী ও সাধারণ মানুষের মাঝে উৎসবের আমেজ ও ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা বিরাজ করছে।

প্রিন্স বলেন, দলীয় প্রধানের জনসভা সফল করতে আমরা জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগ পর্যায়ে বর্ধিত সভা করে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছি। জনসভায় এসে মানুষ যেন কোনো দুর্ভোগে না পড়ে, তার জন্য পর্যাপ্ত পানি ও টয়লেটের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান বলেন, প্রকল্পের গুরুত্ব বোঝাতে প্রধানমন্ত্রী বারবার পাবনায় আসছেন। ইতোমধ্যে তিনবার তিনি পাবনা সফর করেছেন। আগামীতে আরও কয়েকবার আসবেন।

তিনি বলেন, রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রথম চুল্লির কাজ শুরু উদ্বোধনের এক বছর পর দ্বিতীয় চুল্লির কাজ উদ্বোধন করার কথা। সেখানে আমরা মাত্র সাত মাস পরই দ্বিতীয় চুল্লির ঢালাই কাজ শুরু করতে যাচ্ছি। তার মানে এই প্রকল্পের যে সময় লাগার কথা, তারমধ্যেই আমরা কাজ শেষ করতে পারবো।

জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন ও পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির পিপিএম জানান, প্রধানমন্ত্রীর আগমন ও জনসভা শান্তিপূর্ণভাবে শেষ করতে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। সে লক্ষ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি শেষের দিকে রয়েছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর আগমন ঘিরে জেলাবাসীর মাঝে বেশ উদ্দীপনা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। আশা করি, নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তার মধ্যদিয়ে ও সবার সহযোগিতায় সুষ্ঠুভাবে সব আয়োজন শেষ হবে।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৩০ নভেম্বর ‘রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প’র প্রথম চুল্লির প্রথম কংক্রিট ঢালাইয়ের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ad