গ্রুপিং করে কেউ নেতা হতে পারবে না: কাদের

Obaidul-kader
ad

জাগরণ ডেস্ক: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, গ্রুপিং করে এখন কেউ নেতা হতে পারবে না, যোগ্যতা দিয়ে নেতা হতে হবে।

বৃহস্পতিবার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের তিনি কোন পকেট কমিটি না করে নেতৃত্বের গুণাবলী এবং কর্মীদের কাছে গ্রহণযোগ্যতা দেখে নেতা নিবার্চনের আহ্বান জানান।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান অনুষদ চত্বরে বৃহস্পতিবার এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। দুপুরে এ সম্মেলনের উদ্বোধন করেন ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ।

জবি ছাত্রলীগের বিদায়ী সভাপতি এফ এম শরিফুল ইসলামের সভাপতিত্বে বিদায়ী সাধারণ সম্পাদক এস এম সিরাজুল ইসলামের পরিচালনায় সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও ঢাকা বার অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট কাজী নজিবুল্লাহ হিরু, সাবেক ডাক ও টেলিযোগযোগ মন্ত্রী রাজিউদ্দীন আহম্মেদ রাজু, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম বাবু এমপি, ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন, জবি ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি বাচ্চু মিয়া প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী আরও বলেন, ছাত্রলীগ যখন পত্রিকায় অপকর্মের শিরোনাম হয় তখন সরকারের সব অর্জন ম্লান হয়ে যায়।

তিনি বলেন, টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি, হলের সিট ভাগাভাগি ও রুম ভাগাভাগি বন্ধ করতে হবে।

এসময় তিনি গুলিস্তান ও ঢাকা কলেজের ঘটনা উল্লেখ করে তিনি বলেন, শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে ওই সব নেতাদের বিরুদ্ধে সাংঠনিক ও প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, এখন থেকে কোনো নির্বাচনে বিদ্রোহ করলেই সঙ্গে সঙ্গে বহিষ্কার। এছাড়া যেখানে অপকর্ম সেখানে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে। ছাত্রলীগ করতে হলে সংগঠনের নিয়ম মেনে চলতে হবে।

সাঈদ খোকন বলেন, জঙ্গিবাদ প্রতিহত করতে তরুণ সমাজকে এগিয়ে আসতে হবে। ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদেরকে বড় বড় স্বপ্ন দেখার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, নিজেদের ভাগ্য পরিবর্তনের মাধ্যমে দেশের ভাগ্য পরিবর্তন করতে হবে।

জবির ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন শেষ করেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ।

ad