শ্যামল কান্তির বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা ও গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে শাহবাগে মানববন্ধন

shahbag human chain
ad

নিজস্ব প্রতিবেদক: নারায়ণগঞ্জের শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্তের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ও হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা ও গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে শাহবাগে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

শুক্রবার (২৬ মে) বিকাল ৫টায় রাজধানীর শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে এ মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করে গৌরব ‘৭১, বোয়ান (ব্লগার এন্ড অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট নেটওয়ার্ক), প্রাণের ৭১-এর মতো বেশকিছু প্রগতিশীল সংগঠন।

এ সময় বক্তব্য রাখেন, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুস, চিত্রকর কামাল পাশা চৌধুরী, ড. তৌহিদ রেজা নূর,  সাংবাদিক অঞ্জন রায়, গৌরব ‘৭১ এর সাধারণ সম্পাদক এফ এম শাহীন, বোয়ান এর সভাপতি অনিমেষ রহমান এবং কাজী সালমা সুলতানা প্রমূখ।

মানববন্ধনে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুস বলেন, শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্তের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ও হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে অবিলম্বে তাকে মুক্তি দিতে হবে। একজন শিক্ষকের বিরুদ্ধে এমন ষড়যন্ত্রমূলক মামলা জাতির জন্য লজ্জাজনক।

তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের এমপি এ কে এম সেলিম ওসমান শিক্ষক শ্যামল কান্তিকে মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসিয়েছেন। তিনি একজন শিক্ষকের সাথে যে ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ করেছেন তার জন্য তাকে অবশ্যই বিচারের আওতায় আনতে হবে। তার জামিন বাতিল করে জেলহাজতে প্রেরণের আহ্বান জানান তিনি।

চিত্রকর কামাল পাশা চৌধূরী তার বক্তব্যে বলেন, সুপ্রিম কোর্ট থেকে ন্যায়বিচারের প্রতীক হিসেবে স্থাপিত ভাস্কর্য অপসারণ মানে মৌলবাদী শক্তির কাছে মাথা নত করা। মুক্তিযুদ্ধের চেতনার অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার ক্ষেত্রে এ ঘটনা বড় ধরনের আঘাত। অবিলম্বে ন্যায়বিচারের প্রতীক ভাস্কর্য আগের স্থানে পূণঃস্থাপন করতে হবে।

সাংবাদিক অঞ্জন রায় বলেন, একজন শিক্ষককে হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা দিয়ে জেলে পাঠানো অত্যন্ত লজ্জার ব্যাপার। যারা তার বিরুদ্ধে এই মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে জাতির কোন সঙ্কটের সময় তাদের কখনোই পাওয়া যায়নি। তারা নিজের আখের গোছাতেই ব্যস্ত থাকে। তাই সরকারের উচিত এসব সুবিধাবাদীদের দ্রুত বিচারের আওতায় এনে শাস্তির মুখোমুখি করা।

গৌরব ৭১ এর সাধারণ সম্পাদক এফ এম শাহীন বলেন, জাতীয় পার্টির নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের এমপি এ কে এম সেলিম ওসমান নারায়ণগঞ্জে নানা ধরণের অপকর্ম করে আসছে। এই ওসমান পরিবারের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জের মেধাবী কিশোর ত্বকী হত্যারও অভিযোগ রয়েছে। তাকে দ্রুত বিচারের আওতায় আনা না গেলে দেশে আইন বলে কিছুই থাকবে না।

ad