আফগানিস্তানে তালেবান হামলায় নিহত ১৪০

jagoran- Afghanistan, Taliban, attack, 140 killed,
ad

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: আফগানিস্তানের গজনি শহরে তালেবানদের হামলায় এখন পর্যন্ত ১৪০ জন নিহতের খবর পাওয়া গেছে।

শুক্রবার (১০ আগস্ট) ভোরে এ হামলা চালানো হয় বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

দেশটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সরকারি বাহিনী ওই এলাকা থেকে জঙ্গিদের হটিয়ে দিতে সক্ষম হয়েছে দাবি করলেও বিভিন্ন স্থানে বিচ্ছিন্নভাবে গোলাগুলির শব্দ শোনা যাচ্ছে।

রাজধানী কাবুলে যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীর হেডকোয়ার্টার থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, স্থানীয় সময় সকাল ৮টার দিকে গজনিতে লড়াই শুরু হয়। এরই মধ্যে আফগান বাহিনী সরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সেগুলোর নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে।

আতঙ্কে ঘর-বাড়ি থেকে বের হতে পারছিলেন না স্থানীয়রা। দক্ষিণাঞ্চলীয় আফগানিস্তানের সঙ্গে কাবুলের সড়কটি বন্ধ করে দেয়া হয়। বেশ কয়েক ঘণ্টার বন্দুকযুদ্ধ শেষে তালেবান হটিয়ে শহরটি পুনর্দখলে নেয়ার দাবি করে আফগান বাহিনী।

আফগান কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তালেবানরা গজনির পুলিশ তল্লাশি চৌকি পুড়িয়ে দিয়েছে, আবাসিক ও বাণিজ্যিক এলাকায় গোলাবর্ষণ করে।

গজনির সরকারি মুখপাত্র মোহাম্মদ আরিফ নুরি জানান, শহরের চতুর্দিক থেকে তালেবান বিদ্রোহীরা হামলা চালায়। আফগান সেনারা তা প্রতিহত করে। সব জায়গাতেই হতাহতের ঘটনা ঘটেছে।

গজনি শহরের হাসপাতালের প্রশাসক বাজ মোহাম্মদ হেমাত বলেন, তালেবানের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিরাপত্তা বাহিনীর ১৪ সদস্য নিহত এবং আরও ২০ সদস্য আহত হয়েছেন। দুজন বেসামরিক নাগরিকও আহত হয়েছেন। তবে বন্দুকযুদ্ধের পর পুরো শহর স্তব্ধ হয়ে গেছে। সেখানে অ্যাম্বুলেন্সও চলাচল করতে পারছে না এবং অ্যাম্বুলেন্সও বাইরে পাঠানো হচ্ছে না।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ছবিতে নগরীতে আগুন জ্বলতে দেখা গেছে। তবে ছবির সত্যতা যাচাই করা সম্ভব হয়নি।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, অভিযানের পর পুলিশ বাড়িতে বাড়িতে তল্লাশি চালিয়েছে। কিভাবে তালেবান শহরটিতে অনুপ্রবেশ করলো তা জানার চেষ্টা করছে তারা।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মোহাম্মদ রাদমানিস জানিয়েছেন, তালেবানের বিরুদ্ধে অভিযানে পুলিশকে সহায়তা করেছে সেনাবাহিনী। শহর এখন সরকারি বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

ad