আমাকে হত্যার জন্য খুনিকে সুপারি দেয়া হয়েছে: মমতা

mamata banarjee
ad

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দাবি করেছেন, তাকে খুন করার জন্য রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র চলছে। কয়েকটি রাজনৈতিক দল তাকে হত্যার জন্য ভাড়াটে খুনি ঠিক করেছে। ভাড়াটে খুনিকেও সুপারি দেয়া হয়েছে।

শুক্রবার (১১ মে) পশ্চিমবঙ্গের বাংলা ভাষার টেলিভিশন চ্যানেল ‘জি টোয়েন্টি ঘটনা’ কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে মমতা বলেন, আমার কাছে তথ্য আছে, কয়েকটি রাজনৈতিক দল, আমি তাদের নাম বলবো না, তারা আমাকে হত্যার চেষ্টা করছে। তারা আমাকে হত্যার জন্য অর্থের বিনিময়ে ভাড়াটে খুনি ঠিক করেছে। কিন্তু আমি ভয় পাইনি।

তিনি বলেন, আমাকে মারতে ভাড়াটে খুনিকে সুপারি দেয়া হয়েছে। সুপারির টাকা অ্যাডভান্সও (অগ্রিম টাকা) করা হয়েছে। সেই ভাড়াটে খুনিরা আমার বাড়ি-ঘরদোর রেকি (পর্যবেক্ষণ) করে গিয়েছে। একটি রাজনৈতিক দলই এই ‘সুপারি’ দিয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে।

মমতা বলেন, যারা রাজনীতির ময়দানে লড়তে ভয় পায়, তারাই এই খুনের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। এদের প্রথম কাজ, প্রথমে চরিত্র হনন করা। তারপর খুনের চেষ্টা করা। মরতে আমি ভয় পাই না। অতীতেও আমাকে খুনের চেষ্টা হয়েছে। মরতে মরতে বেঁচে ফিরেছি।

সাক্ষাত্ৎকারে মমতা বলেন, আমাকে খুন করতে যে ‘সুপারি’ দেয়া হয়েছে, তা আগেই জেনেছি। কিন্ত, প্রকাশ্যে কখনও কাউকে সে কথা বলিনি। আমার পরিবারের লোকেরাও জানে না। পুলিশ আমাকে বারবার বাড়ি বদলাতে বলেছে। আমি রাজি হইনি।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, যারা ভাবছে, আমাকে খুন করলেই তৃণমূল কংগ্রেস দলটা শেষ হয়ে যাবে, তারা ভুল করছে। আমি বাস্তববাদী। আমার অবর্তমানে দল কে চালাবে, আমি সেই রাজনৈতিক উইল করে রেখেছি। আমার জরুরি পরিকল্পনা প্রস্তুত আছে।

ad