আসামের বিমানবন্দরে রাত কাটালেন পশ্চিমবঙ্গের ৮ এমপি

Jagoran- Airport of Assam, spent night, 8 MP,
ad

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূল কংগ্রেসের আট এমপি ভারতের আসাম রাজ্যের শিলচর বিমানবন্দরে রাত কাটিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২ আগস্ট) বিকাল থেকে পুলিশ তাদেরকে ওই বিমানবন্দরে আটক রেখেছে। এদের মধ্যে রয়েছেন- পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের পূর্তমন্ত্রী সিরাদ হাকিম, লোকসভা সদস্য সুখেন্দুশেখর রায়, কাকলি ঘোষ দস্তিদার, মমতাবালা ঠাকুর, অর্পিতা ঘোষ, নাদিম-উল হক, রত্না দে-নাগ, এবং রাজ্য বিধানসভা সদস্য মহুয়া মৈত্র।

তাদের কাউকেই শিলচর বিমানবন্দরের বাইরে যেতে দেওয়া হয়নি। বিমানবন্দরে নামার পর এ নিয়ে পুলিশের সাথে তাদের চিৎকার-চেঁচামেচি হয়, কিছুটা হাতাহাতিও হয়।

দিল্লিতে তৃণমূল নেতা দেরেক ও’ব্রিয়েন অভিযোগ করে বলেছেন, আমাদের সদস্যদের সঙ্গে ধস্তাধস্তি করা হয়েছে। সুখেন্দুশেখর রায়ের বুকে পেসমেকার বসানো আছে। তার সঙ্গেও ধস্তাধস্তি হয়েছে।

এদিকে, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বৃহস্পতিবার বিকালে তার দলের এমপিদের শিলচর বিমানবন্দরে অবস্থানের নির্দেশ দিয়েছেন।

দিল্লি থেকে ফিরেই তিনি বলেছেন, আসামের মানুষ এখন আতঙ্কিত। আসামের নাগরিকত্বের তালিকায় নাম বাদ যাওয়া মানুষের সঙ্গে কথা বলতে গিয়েছিলেন আমাদের প্রতিনিধিরা। কোনো সভা ছিল না। নাগরিক কনভেনশনে যোগ দিতে গিয়েছিলেন।

মমতা ব্যানার্জি বলেন, আসামের অসহায় মানুষ যাতে কোনোরকম কথা বলতে না পারেন, আসল তথ্য যাতে ধামাচাপা দেয়া যায়, সেই জন্য চক্রান্ত করছে বিজেপি। দেশে সুপার ইমার্জেন্সি চলছে। আমার মনে হয়, এটাই বিজেপির শেষের শুরু।

ad