ইতালিতে সেতু ধসে নিহত ৩৫

Jagoran- Italy, bridge collapse, 35 dead
ad

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইতালির উত্তরাঞ্চলীয় শহর জেনোয়ায় উড়ালসেতুর একাংশ ধসে অন্তত ৩৫ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও বেশ কয়েকজন। সেতুটির যে অংশটুকু এখনও দাঁড়িয়ে আছে তার নিচ ও আশেপাশের ভবনগুলো থেকে চার শতাধিক লোককে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৪ আগস্ট) স্থানীয় সময় বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ধ্বংসস্তূপে অনেকে আটকা পড়ায় নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছে কর্তৃপক্ষ।

সেতু ধসের সময় বেশ কয়েকটি গাড়ি ১০০ মিটার ওপর থেকে নিচে পড়ে যায়। এ সময় ব্যাপক ঝড়-বৃষ্টি হচ্ছিল। ১৯৬০ সালে নির্মিত সেতুটি স্থানীয়ভাবে মোরান্দি ব্রিজ নামে পরিচিত। সর্বশেষ ২০১৬ সালে এটি সংস্কার করা হয়।

ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, ঝড়ো আবহাওয়ায় সেতুটি আঁকড়ে রাখা এক টাওয়ার ভেঙে যায়। এতে নিচে একটি রেললাইনের উপর ভেঙে পড়ে সেতুটি।

আঞ্চলিক এমার্জেন্সি সার্ভিসের দেওয়া একটি ছবিতে দেখা যায়, সেতুর টিকে থাকা অংশটির একেবারে শেষ প্রান্তে একটি ট্রাক আটকে রয়েছে। পড়ে সেটিও ভেঙে পড়ে। সে সময় ব্রিজের ওপর ৩০ থেকে ৩৫টি কার ও তিনটি ভারী যানবাহন ছিল। উদ্ধারকারীরা দুর্ঘটনার কবলে পড়া গাড়ি থেকে আটকে পড়াদের উদ্ধারে কাজ করছেন। উদ্ধার ও তল্লাশি অভিযানে প্রায় ২০০ দমকল কর্মী মোতায়েন করা হয়েছে।

ব্রিজটির যে অংশটি ধসে পড়েছে, সেটি ছিল পোলসেভেরা নদীর ওপর। যখন সেতুটি ধসে পড়ে, তখন এটির ভিত্তি মজবুত করার কাজ চলছিল। সেতুর কাঠামো নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছিল। তবে কেন সেতুটি ধসে পড়ল, তা নিয়ে নানা জল্পনা-কল্পনা চলছে।

জেনোয়া পুলিশের কর্মকর্তা আলেসান্দ্রা বুচি রয়টার্সকে জানান, আমাদের ধারণা ধ্বংসস্তূপের নিচে অনেকেই জীবিত আছে।

এ ঘটনাকে ভয়াবহ ট্রাজেডি উল্লেখ করে দেশটির সড়কমন্ত্রী দ্যানিলো টনিনেলি জানান, ঘটনাস্থলে জোরদার উদ্ধার তৎপরতা চলছে। দুর্ঘটনার কারণ তদন্ত করে দায়ীদের বিচারের আওতায় আনা হবে।

ad