ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

Iran
ad

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বারাক ওবামার সময়ে ইরানের সঙ্গে স্বাক্ষরিত পরমাণু চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (৮ মে) হোয়াইট হাউসের ডিপ্লোমেটিক কক্ষে চুক্তি বাতিলের ঘোষণা দেন ট্রাম্প।

ট্রাম্প বলেন, ইরানের সঙ্গে করা এই পরমাণু চুক্তির কারণে মার্কিন নাগরিক হিসেবে আমি লজ্জিত।এ চুক্তিতে থাকবে না যুক্তরাষ্ট্র। পাশাপাশি ইরানের ওপর অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপেরও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন এই বিশ্বনেতা।

ট্রাম্পের এম ঘোষণার পর ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বলেন, ইরান ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ পুনরায় চালু করার প্রস্তুতি নিচ্ছে। কোনো ধরনের সীমাবদ্ধতা ছাড়াই এই শিল্পকে আমরা সমৃদ্ধ করতে পারব।

তিনি আরও বলেন, যুক্তরাষ্ট্র বেরিয়ে গেলেও অন্য পাঁচটি দেশের সঙ্গে এখনো চুক্তি কার্যকর আছে। চুক্তি বাতিলের মাধ্যমে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ইরানের মানুষের সঙ্গে মনস্তাত্ত্বিক যুদ্ধ তৈরির চেষ্টা করছেন।

এদিকে, এক বিবৃতিতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের এই ঘোষণার বিরোধিতা করেছে ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য ও জার্মানি। আর ইসরায়েল, সৌদি আরব ট্রাম্পের চুক্তি বাতিলের ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে।

২০১৫ সালে ইরানের বিতর্কিত পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে দেশটির সঙ্গে চুক্তি করে ছয় পরাশক্তি দেশ যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, চীন, রাশিয়া ও জার্মানি। চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হয়েছিল ভিয়েতনামে।

ইরানের সঙ্গে হওয়া এই পরমাণু চুক্তির আনুষ্ঠানিক নাম জয়েন্ট কম্প্রিহেনসিভ প্ল্যান অব অ্যাকশন (জেসিপিওএ)। চুক্তি মোতাবেক ইরান পরমাণু কর্মসূচি সীমিত করতে সম্মত হয়েছিল। তেজস্ক্রিয় পদার্থ ইউরেনিয়ামের মজুত কমিয়ে আনতে রাজি হয় দেশটি।এর বিনিময়ে দেশটির ওপর থেকে আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা আংশিক তুলে নেওয়া হয়।

ad