নির্ভয়া গণধর্ষণ ও হত্যা: ৪ আসামীর মৃত্যুদণ্ড বহাল

Nirvaya
ad

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ২০১২ সালের ডিসেম্বরে ভারতের দিল্লীর রাজপথে চলন্ত বাসে নির্ভয়া গণধর্ষণ ও হত্যা মামলার চার আসামীর মৃত্যুদণ্ডের সাজা বহাল রেখেছে সুপ্রিম কোর্ট।

সোমবার (৯ জুলাই) প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র, বিচারপতি আর ভানুমতী ও বিচারপতি অশোক ভূষণের বেঞ্চ এই রায় দেয়।

২০১৭ সালের ৫ মে এই মামলার রায় ঘোষণা করেন বিচারক। রায়ে চারজনকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়। তারা হলেন- অক্ষয় কুমার, মুকেশ, পবন গুপ্ত ও বিনয় শর্মা। এর মধ্যে অক্ষয় বাদে বাকি তিনজন রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন। Asamiআজ তাদের আপিল খারিজ করে দেয়া হয়।

২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর রাতে দক্ষিণ দিল্লিতে একটি বাসে ২৩ বছরের প্যারামেডিক্যাল ছাত্রী নির্ভয়াকে নৃশংসভাবে ধর্ষণ করে ছয়জন। ওই তরুণীর উপর নৃশংস অত্যাচার করার পর তাকে বাস থেকে ছুঁড়ে ফেলে দেয় ধর্ষণকারীরা। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই বছরের ১২ ডিসেম্বর মৃত্যু হয় নির্ভয়ার। এরপরই ক্ষোভে ফেটে পড়ে পুরো ভারত। দেশজুড়ে শুরু হয় বিক্ষোভ। পরে এই ঘটনায় অভিযুক্ত ছয়জনকেই গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর অন্যতম অভিযুক্ত রাম সিংহ তিহাড় জেলে আত্মহত্যা করে। ষষ্ঠ অভিযুক্ত নাবালক হওয়ায় তাকে সংশোধনাগারে পাঠানো হয়। সে তিন বছর পরে ছাড়া পায়।

নিম্ন আদালত এই মামলায় অপরাধীদের মৃত্যুদণ্ডের সাজা দেয়। দিল্লি হাইকোর্ট সেই সাজা বহাল রাখে। এর বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে যায় ধর্ষকরা। গত বছরের ৫ মে রায় ঘোষণার সময় সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিরা বলেন, ‘নৃশংস, বর্বর ও নারকীয় এই অপরাধ সভ্য সমাজকে ধ্বংস করার জন্য সুনামির মতো আঘাত করেছে। তাই অপরাধীদের কোনওভাবে রেহাই দেওয়া যাবে না।’

ad