মালয়েশিয়ার সদ্য বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক গ্রেপ্তার

Najib Razak, arrested,
ad

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মালয়েশিয়ার সদ্য বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাককে দুর্নীতির অভিযোগে দেশটির দুর্নীতিবিরোধী কমিশন গ্রেপ্তার করেছে।

মঙ্গলবার (৩ জুলাই) স্থানীয় সময় দুপুর পৌনে ৩টায় তাকে নিজ বাসভবন থেকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করতে গ্রেপ্তার করা হয়।

মালয়েশিয়ার দুর্নীতিবিরোধী কমিশন জানায়, আগামীকাল বুধবার (৪ জুলাই) সকাল সাড়ে ৮টায় তাকে সেখানকার হাইকোর্টের সামনে হাজির করা হবে।

মালয়েশিয়ার ইনসাইট পোর্টাল জানিয়েছে, ৬৫ বছর বয়সী এই রাজনীতিককে নিজের বাড়ি থেকে একটি পুলিশের গাড়িতে করে নিয়ে যেতে দেখা গেছে।

গত ৯ মে অনুষ্ঠিত জাতীয় নির্বাচনে সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের কাছে পতন ঘটে রাজাকের। এরপরই তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় তহবিল থেকে নিজের ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্টে এক কোটি ছয় লাখ ডলার অনুদান সরানোর অভিযোগের তদন্ত কার্যক্রম শুরু হয়।

গত ২২ মে তাকে প্রথমবারের মতো জিজ্ঞাসাবাদ করে দুর্নীতিবিরোধী কমিশন।

মালয়েশিয়ার উন্নয়নে ওয়ান মালয়েশিয়া ডেভেলপমেন্ট বেরহাড (ওয়ানএমডিবি) নামে তহবিলে শতকোটি ডলার অনুদান দেয়া হয়।

ওই অর্থলুটে নাজিব জড়িত বলে ২০১৫ সালে অভিযোগ ওঠে। মালয়েশিয়ার আদালত প্রধানমন্ত্রী নাজিবকে অর্থ কেলেঙ্কারির অভিযোগ থেকে মুক্তি দিয়েছিল। তবে গত মে মাসের নির্বাচনে সরকার বদলের পর নতুন প্রধানমন্ত্রী মাহথির মোহাম্মদ ক্ষমতায় এসে নতুন করে ওই দুর্নীতি তদন্তের নির্দেশ দেন।

এরপর মালয়েশিয়ার দুর্নীতি দমন বিভাগের কর্মকর্তারা নাজিব রাজাকের বাসায় কয়েক দফা তল্লাশি চালিয়ে বিদেশি মুদ্রা ও বিলাসপণ্য জব্দ করে।

মে মাসের নির্বাচনে নাজিবের পরাজয়ের পেছনে দুর্নীতির অভিযোগ এক বড় কারণ ছিল বলে মনে করা হয়। নির্বাচনের পর নাজিবকে একাধিকবার জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় এবং তার দেশের বাইরে ভ্রমণেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

মাহাথির এবং তার সরকারের ঊর্ধ্বতন নেতাদের বিশ্বাস, নাজিব রাজাক যে ওয়ানএমডিবি ফান্ডের অর্থ আত্মসাৎ করেছেন তার অকাট্য প্রমাণ রয়েছে। এদিকে, মার্কিন প্রসিকিউটররা বলছেন, ৭০ কোটি ডলার অর্থ সাবেক প্রধানমন্ত্রীর একাউন্টে জমা হয়েছে।

ad