৬৬ বছর পর নখ কাটাবেন শ্রীধর!

66 years, nails, cut, sridhar,
ad

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের পুনের বাসিন্দা ৮২ বছরের বৃদ্ধ শ্রীধর চিল্লাল দীর্ঘ ৬৬ বছর পর নিজের হাতের প্রায় দুই মিটার দৈর্ঘ্যের নখ কাটার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ১৯৫২ সালে তিনি সর্বশেষ নিজের বাম হাতের নখ কেটেছিলেন।

ইতোমধ্যে বিশ্বের দীর্ঘতম নখের জন্য ‘গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস’ এবং ‘রিপ্লিজ বিলিভ ইট অর নট’-এ নাম রয়েছে শ্রীধরের। তার বাম হাতের নখের মোট দৈর্ঘ্য ৯০৯.৬ সেন্টিমিটার অর্থাৎ ৯.১ মিটার। এরমধ্যে, বাম হাতের বুড়ো আঙুলের নখের দৈর্ঘ্য সবচেয়ে বেশি ১৯৭.৮ সেন্টিমিটার অর্থাৎ প্রায় ২ মিটার।

তবে এবার ৬৬ বছর ধরে করে যাওয়া নিজের এমন অদ্ভুত কাণ্ডের অবসান ঘটানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন শ্রীধর। তিনি চাইছেন, ৬৬ বছর ধরে যত্ন করে রেখে দেয়া বিশ্বের দীর্ঘতম নখ যেন কোনো জাদুঘরে সংরক্ষিত থাকে।

শ্রীধরের চাওয়াকে প্রাধান্য দিয়ে তার ইচ্ছা পূরণে সাড়া দিয়েছে ‘রিপ্লিজ বিলিভ ইট অর নট’ মিউজিয়াম কর্তৃপক্ষ। তারা জানিয়েছে, নিউইয়র্কে রিপ্লি’র সংগ্রহশালায় তা সংরক্ষিত রাখা থাকবে।

রিপ্লি কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করেছে, নখ কাটানোর জন্য নিজেদের উদ্যোগে শ্রীধরকে তারা নিউইয়র্কে নিয়ে গিয়েছে। সেখানে এই নখ কাটা উপলক্ষ্যে একটি অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয়েছে।

যাকে নিয়ে এত মাতামাতি সেই শ্রীধর তার ৬৬ বছর ধরে নখ রাখার কারণ জানিয়ে বলেন, স্কুলে একবার শিক্ষিকার লম্বা নখ ভেঙে দেয়ার জন্য তাকে ভীষণ মার খেতে হয়েছিল। তখন সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম, আমিও বড় নখ রাখবো।

সেই থেকে শুরু অটল থাকা শ্রীধরের নখ বড় রাখার মিশন। তারপর পেরিয়ে গেছে ৬৬ বছর। নখ না কেটে সৃষ্টি করেছেন অনন্য এক ইতিহাস।

ad