গর্ভাবস্থায় কোমল পানীয় খেলে গর্ভবতীদের যে সমস্যা হবে

Soft drinks, pregnancy, problems,
ad

জাগরণ ডেস্ক: প্রচণ্ড গরমে অনেক সময় শরীরে পানির চাহিদা স্বাভাবিকভাবেই বেড়ে যায়। আর তখন তৃষ্ণা মেটানোর জন্য পানির পাশাপাশি কোমল পানীয় পান করে থাকেন অনেকেই। কিন্তু এই কোমল পানীয় পানের ফলে গর্ভবতীদের গুরুতর শারীরিক সমস্যা হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

চিনির মাত্রা বেশি রয়েছে এমন ঠান্ডা কোমল পানীয় খেলে গর্ভবতী মায়ের শারীরিক ক্ষতি তো হয়ই, সেইসঙ্গে বাচ্চা জন্ম নেয়ার পর তার অ্যাস্থেমার মতো রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কাও বৃদ্ধি পায়। গর্ভাবস্থায় যে মায়েরা বেশি মাত্রায় কোল্ড ড্রিঙ্ক খেয়ে থাকেন, তাদের বাচ্চারা জন্ম নেওয়ার ৭-৯ বছরের মধ্যে ক্রণিক অ্যাস্থেমায় আক্রান্ত হয়।

তাই আপনার বাচ্চাকে যদি সুন্দর, স্বাস্থ্যকর ভবিষ্যৎ উপহার দিতে চান, তাহলে ভুলেও এই গর্ভাবস্থায় একবারও ঠাণ্ডা কোমল পানীয় স্পর্শ করবেন না।

এমনিতেও মানবদেহের জন্য কোমল পানীয় খুব একটা স্বাস্থ্যকর নয়। এক বোতল কোমল পানীয় খেলে আমাদের শরীরে প্রায় ১৪০ গ্রাম ক্যালরি প্রবেশ করে। শরীরের জমতে থাকা এই অতিরিক্ত ক্যালরি এক সময়ে গিয়ে ওজন বৃদ্ধির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। সেইসঙ্গে হজম ক্ষমতা বিগড়ে যাওয়ার কারণে আরও নানা ধরনের রোগের প্রকোপও বৃদ্ধি পায়।

এতে সোডিয়ামের পরিমাণ খুব বেশি থাকে। তাই এমন ধরনের পানীয় বেশি মাত্রায় খেলে শরীরে সোডিয়ামের মাত্রা খুব বেড়ে যায়। ফলে ব্লাড প্রেসার বৃদ্ধি পাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

ad