মেয়ে দাঁড়িয়ে থেকে বিয়ে দিলেন মায়ের!

মেয়ের বিয়ে হচ্ছে আর মা দাঁড়িয়ে দেখছেন, সবকিচুর খোঁজ খবর নিচ্ছেন এবং বিদায়ের সময় কাঁদছেন এটাই স্বাভাবিক ব্যাপার। তবে এর উল্টোটা ঘটেছে। মেয়ে দাঁড়িয়ে থেকে বিয়ে দিয়েছেন মায়ের। কেঁদেছেন বিদায়বেলায়অ


সম্প্রতি ভারতে ঘটেছে এই বিস্ময়কর ঘটনা। ৩২ বছর বয়সী মায়ের বিয়ে দিয়েছেন তার মেয়ে।


মায়ের বিয়ে নিয়ে খুশির অন্ত ছিল না মেয়ের। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মায়ের বিয়ের সবকিছু তদারকি করেছে, খুঁটিনাটির ছবি তুলে টুইটারে পোস্ট করেছেন।


তিনি লিখেছেন, ‘মায়ের বিয়ে হচ্ছে, আমার বিশ্বাসই হচ্ছে না’। 


হিন্দুস্থান টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, কিশোরী জানিয়েছে, তার মা ১৫ বছর একা থাকার পর আবার বিয়ে করছেন। মেয়ে হিসেবে এটা তার জন্য খুবই আনন্দের সময়। তিনি জানান, মা ভালোবাসার জন্য অনেক কষ্ট সহ্য করেছেন। সমাজের ভ্রুকুটি, তির্যক মন্তব্যের ঊর্ধ্বে মেয়েদের নিজের ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত নেওয়াও যে কতটা কঠিন হতে পারে, তা-ই যেন উঠে এসেছে তার কথায়।


ওই কিশোরী জানিয়েছেন, মাত্র ১৭ বছর বয়সেই বিয়ে হয়ে যায় তার মায়ের। তার জন্মের যখন ২ বছর, তখনই দু’জনকেই ছেড়ে বিয়ে ভেঙে চলে যায় তার বাবা।


ওই কিশোরীর পোস্ট এখন আলোচনায় গোটা ভারতে। দুর্দান্ত কাজের জন্য তিনি প্রশংসায় ভাসছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।