একরামের অডিও ক্লিপ পেয়েছি, তদন্ত চলছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

Ekram, audio clip, home minister,
ad

জাগরণ ডেস্ক: কক্সবাজারে মাদকবিরোধী অভিযানে র‍্যাবের সঙ্গে তথাকথিত বন্দুকযুদ্ধে কক্সবাজারের টেকনাফ পৌরসভার কাউন্সিলর একরামুল হকের নিহত হওয়ার আগ মুহূর্তের কথোপকথনের অডিও ক্লিপটি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পৌঁছেছে এবং ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে তদন্ত চলছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

রবিবার (৩ জুন) রাজধানীর স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটিতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর কর্তৃক দেশব্যাপী মাদকবিরোধী ফেস্টুন বিতরণ ও উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, একরামের পরিবারের সরবরাহ করা ডিও ক্লিপটি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পৌঁছেছে। অডিও ক্লিপটি যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। কোনো হত্যাই তদন্তের বাইরে নয়।

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, যতদিন না পর্যন্ত মাদক নির্মূল হবে, তত দিন মাদক ব্যবসায়ীদের তালিকা হালনাগাদ হতে থাকবে, অভিযানও চলবে। বন্দুকযুদ্ধে যারা নিহত হচ্ছে, তাদের কিছুতেই আমরা কন্ট্রোল করতে পারছিলাম না। বিশেষ বাহিনীর তৈরি করা তালিকা ধরে মাদকবিরোধী অভিযান চালানো হচ্ছে। এই তালিকা অনেক লম্বা।

বন্দুকযুদ্ধে নিহত হওয়া প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কেউ নিহত হোক বা আহত হোক তা তাদের কাম্য নয়। যদি এটি কোনো পরিকল্পিত ঘটনা হয়ে থাকে, তাহলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেয়া হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। তার অংশ হিসেবে অভিযান চলছে, তরুণ সমাজকে মাদকের হাত থেকে রক্ষা করতে হবে। তাই এর বিরুদ্ধে ঘোষিত যুদ্ধে জয়ী হতে হবে। আমরা মাদকের বিরুদ্ধে জয়ী হবোই। তার অংশ হিসেবেই লিফলেট বিতরণ কর্মসূচি।

কামাল বলেন, বিভিন্ন অনুষ্ঠানে মাদকের বিরুদ্ধে আমি বিভিন্নভাবে কথা বলতে চেষ্টা করেছি। মাদক যে একটি সর্বনাশা সেই দিকগুলো আমরা তুলে ধরতে চেষ্টা করছি। আজকেও ঠিক সেই চেষ্টাই করছি আমরা।

তিনি বলেন, মাদক সেবন করলে কী ধরনের সমস্যা হতে পারে সেই দিকগুলো তুলে ধরতে প্রথমে ৩৬ হাজার পোস্টার আমরা সারা বাংলাদেশের স্কুল-কলেজ, মাদরাসা ও বিশ্ববিদ্যালয়ে লাগানো হবে ছাত্রদের সচেতন করার লক্ষে। মাদকের নেশায় যেন কোনো ছাত্র তার পরিবারের বোঝা না হয়।

তিনি আরও বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে হবে সমাজের সবাইকে নিয়ে। কিছুতেই আমাদের যুবক ও তরুণদের পথ হারাতে দেবো না। আসুন সবাইকে এই যুদ্ধে সামিল হয়ে, মাদক নির্মূল করি। যুবসমাজকে বাঁচাতে হবে। মেধা নষ্ট হতে দেয়া যাবে না। সেজন্যই মাদকের বিরুদ্ধে সর্বাত্মক যুদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। আমাদের জয়ী হতেই হবে।

ad