কুষ্টিয়ায় স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর ফাঁসি

hanging
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার মিরপুরের কবরবাড়িয়ায় স্ত্রী হত্যার মামলায় স্বামীকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। সেইসঙ্গে আসামীকে দুই লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (১৪ মার্চ) দুপুর ১২টায় কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিজ্ঞ বিচারক এ বি এম মাহমুদুল হক এ রায় প্রদান করেন। এ সময় আসামী আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামী মিরপুর উপজেলার কবরবাড়িয়া গ্রামের শের আলী মালিথার ছেলে রুবেল মালিথা ওরফে প্রেম।

কুষ্টিয়া আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অনুপ কুমার নন্দী জানান, ২০১৪ সালে কবরবাড়িয়া গ্রামের শের আলী মালিথার ছেলে রুবেল মালিথার সাথে পাশের তাঁতিবন গ্রামের আব্দুল কুদ্দুসের মেয়ে কুমকুমি খাতুনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে তাদের মধ্যে বিভিন্ন কারণে ঝগড়া-বিবাদ লেগে থাকতো। রুবেল তার স্ত্রীকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করতো।

পিপি জানান, ২০১৪ সালের ২ মার্চ রাতে রুবেল মালিথা তার স্ত্রী কুমকুমিকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে ঘরের বারান্দায় ফেলে রাখে। এ ঘটনায় নিহতের পিতা আব্দুল কুদ্দুস জামাই রুবেল মালিথাকে আসামী করে মিরপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে আসামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় বুধবার বিচারক তাকে ফাঁসির আদেশ দেন। পরে তাকে কুষ্টিয়া জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

ad