কুষ্টিয়ায় হত্যা মামলার প্রধান আসামী আ.লীগ নেতার থানায় আত্মসমর্পণ

kamarul arefin
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার মিরপুরে যুবলীগ কর্মী শাহাবুদ্দিন আহমেদ ওরফে শাহিন খুনের ঘটনায় দায়ের করা হত্যা মামলার প্রধান আসামী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কামারুল আরেফিন অত্মসমর্পণ করেছেন।

শনিবার (২৪ জুন) বিকালে তিনি মিরপুর থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করেন। কামারুল আরেফিন মিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান।

আধিপত্য বিস্তার নিয়ে গত রবিবার বিকালে আমলা বাজারে আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষে যুবলীগের কর্মী শাহাবুদ্দিন আহমেদ নিহত হন। এতে আরও ৬ জন গুরুতর আহত হয়ে ঢাকাসহ বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

মিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামারুল আরেফিন এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও আমলা ইউপির চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলামের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে ওই সংঘর্ষ হয়।

ঘটনার চারদিন পর গত বৃহস্পতিবার বিকালে মিরপুর থানায় উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক  ও আমলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম বাদি হয়ে ৪০ জনের নাম উল্লেখ করে হত্যা ও বোমা বিস্ফোরণের অভিযোগে মামলা দায়ের হয়। এতে অজ্ঞাত আরও ১৫-২০ জনকে আসামী করা হয়েছে। মামলায় কামারুল আরেফিন প্রধান আসামী।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও মিরপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আজিজুর রহমান জানান, বিকালে কামারুল আরেফিন থানায় হাজির হয়ে আত্মসমর্পণ করেন। পরে বিকালেই তাকে কুষ্টিয়া আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ad