জুনে দেশের বিভিন্ন স্থানে বন্যার আশঙ্কা

Philippines, flood, landslides, dead, 205,
ad

জাগরণ ডেস্ক: মৌসুমী বৃষ্টিপাতের কারণে আগামী জুন মাসে দেশের বিভিন্ন স্থানে স্বল্প ও মধ্যম মেয়াদি বন্যার আশঙ্কার কথা জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। দীর্ঘমেয়াদি পূর্বাভাস দিতে আবহাওয়া অধিদপ্তরের গঠিত বিশেষজ্ঞ কমিটি এই পূর্বাভাস দিয়েছে।

একইসঙ্গে আবহাওয়া অধিদপ্তর জুন মাসে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাত এবং বঙ্গোপসাগরে এক থেকে দুটি নিম্নচাপ সৃষ্টি হতে পারে বলেও জানিয়েছে। আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন, মৌসুমী বায়ু বিস্তার লাভ অব্যাহত থাকায় আগামী দিনগুলোতে বৃষ্টির পরিমাণ আরও বাড়বে।

বিশেষজ্ঞ কমিটির জুন মাসের পূর্বাভাস প্রতিবেদন থেকে জানাগেছে, জুন মাসের প্রথমার্ধের মধ্যে সারাদেশে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু (বর্ষা) বিস্তার লাভ করতে পারে।

চলতি মাসে মৌসুমী (বর্ষাকাল) বৃষ্টিপাতের কারণে দেশে উত্তর, উত্তর-পূর্বাঞ্চল এবং দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের কিছু স্থানে স্বল্প থেকে মধ্য মেয়াদি বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে। তবে দেশের অন্যান্য স্থানে নদ-নদীর স্বাভাবিক প্রবাহ বিরাজমান থাকবে।

কাগজে কলমে আষাঢ়-শ্রাবণ বর্ষাকাল হলেও ইতোমধ্যেই প্রকৃতিতে বর্ষার আমেজ শুরু হয়ে গেছে। সোমবার জ্যৈষ্ঠ মাসের ২১ তারিখ। কিন্তু এখনই প্রায় প্রতিদিনই রাজধানীসহ সারাদেশেই বৃষ্টি হচ্ছে।

সোমবার (৪ জুন) সকাল ৬টা পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে টাঙ্গাইলে। সেখানে ৭৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। এ সময়ে ঢাকায় ৪০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগ এবং ঢাকা বিভাগের পূর্বভাগ পর্যন্ত অগ্রসর হয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতি দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু আরও অগ্রসর হওয়ার অনুকূলে রয়েছে। পশ্চিমা লঘুচাপ পশ্চিমবঙ্গ এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

এদিকে সোমবার (৪ জুন) সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা বা ঝোড়ো হাওয়া ও বিদ্যুৎ চমকানোসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বৃষ্টি হতে পারে।

ad