নরসিংদীতে নিহত ইউপি চেয়ারম্যানের প্রথম জানাজা সম্পন্ন, দাফন কাল

Shot, killed, UP chairman, burial, tomorrow,
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার দুর্গম চর এলাকা বাঁশগাড়ি ইউনিয়নের সাতবারের চেয়ারম্যান, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও রায়পুরা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সিরাজুল হকের (৭০) প্রথম জানাজা সম্পন্ন হয়েছে। আগামীকাল তার দাফন সম্পন্ন হবে।

শনিবার (৫ মে) সকাল ১০ টায় বাঁশগাড়ি নতুন বাজারে দ্বিতীয় নামাজে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে বীর মুক্তিযোদ্ধা বাঁশগাড়ি ইউপি চেয়ারম্যানের লাশ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা হবে।

নিহত সিরাজুল হকের ছেলে আশরাফুল হক জানান, ইতালি এবং আমেরিকা থেকে তার অপর ছেলে-মেয়েসহ স্বজনরা বিদেশ থেকে আসার পর দাফন সম্পন্ন হবে।

এদিকে, শুক্রবার (৪ মে) বেলা ৩টায় সিরাজুল হকের প্রথম নামাজে জানাজা রায়পুরা উপজেলার দুর্গম চর এলাকা মেঘনা নদীর অপর পাড়ে বাঁশগাড়ি পুরাতন বাজার মাঠে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জানাজায় সাবেক মন্ত্রী রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু এমপি, রায়পুরা উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান চৌধুরী, পৌর মেয়র জামাল মোল্লা, স্থানীয় প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দসহ এলাকার শত শত মানুষ অংশ নেন।

জানাজা শেষে সাবেক মন্ত্রী রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু বলেছেন, ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

জানাজার পরে তার লাশ হিমায়িত গাড়িতে লাশ রাখা হয়। লাশটি বর্তমানে রায়পুরা থানায় রয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩ মে) দুপুরে রায়পুরা উপজেলা পরিষদে দুর্যোগ, ত্রাণ ব্যবস্থাপনার সভা শেষে নিজ বাড়ি বাঁশগাড়ি যাবার পথে আলীনগর আড়াকান্দি নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে।

সন্ত্রাসীরা সিরাজুল হকের মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে তার মাথায় এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে গুলি করে। এতে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। এ সময় আশপাশের লোকজন দৌড়ে এলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।

খবর পেয়ে স্বজনরা তাকে প্রথমে রায়পুরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। পরে তাকে ঢাকায় নেয়ার পথে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শিবপুর উপজেলার ইটাখোলা নামক স্থানে পৌঁছালে পথিমধ্যে তার মৃত্যু হয়।

নরসিংদী জেলা হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাক্তার মিজানুর রহমান বলেন, অধিক রক্তক্ষরণে জেলা হাসপাতালে আনার পূর্বেই তার মৃত্যু হয়েছে।

রায়পুরা উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান চৌধুরী বলেন, বাঁশগাড়ি ইউনিয়নের সাতবারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান সিরাজুল হকের জনপ্রিয়তাই তার মৃত্যুর কারণ।

এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষুব্ধ জনতা শুক্রবার রাতে সিরাজুল হকের প্রতিপক্ষের ১০-১২ টি বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ ও লুটপাট করে।

রায়পুরা থানার ওসি মো. দেলোয়ার হোসেন জানান, এ ঘটনায় এখনও মামলা দায়ের হয়নি। তবে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। এলাকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ঘটনায় জড়িতদের সনাক্ত করতে এবং আইনের আওতায় আনার জন্য পুলিশি তৎপরতা অব্যহত আছে।

ad