পান্থপথে হোটেল ওলিও ইন্টারন্যাশনালে অভিযান, এক জঙ্গি নিহত

Panthapath, expedition, 1 'militant', dead
ad

জাগরণ ডেস্ক: রাজধানীর পান্থপথের স্কয়ার হাসপাতালের পাশে অবস্থিত হোটেল ওলিও ইন্টারন্যাশনালে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট ও সোয়াট সদস্যদের অভিযানে সন্দেহভাজন এক জঙ্গি নিহত হয়েছে। আত্মঘাতী বোমা বেস্ফোরণে তার মৃত্যু হয়েছে। 

মঙ্গলবার (১৫ আগস্ট) সকাল পৌনে ১০টার দিকে হোটেলটিতে অভিযান শুরু করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

ট্রলি বোমার আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নিহত ব্যক্তির নাম সাইফুল ইসলাম (২১)। তার বাড়ি খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলায়।

অভিযান শুরুর কিছুক্ষণ পর হোটেল ওলিও ইন্টারন্যাশনাল থেকে বিস্ফোরণ ও গুলির শব্দ পাওয়া যায়। বিস্ফোরণে ভবনটির এক পাশের কিছু অংশ ধসে পড়েছে। চতুর্থ তলার ওই ধ্বংসস্তূপের মধ্যে একজনের দেহ পড়ে থাকতে দেখা যায় ঘটনাস্থল থেকে পাওয়া ছবিতে। হোটেলটির ৩০১ নম্বর কক্ষে নিহত ওই জঙ্গির মরদেহ পড়ে আছে বলে জানায় পুলিশ।

Panthapath, expedition, 1 'militant', dead

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ভেতর থেকে দফায় দফায় চালানো বোমা হামলায় হোটেলের আশপাশের বিলবোর্ড ভেঙে পড়েছে।

সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঘটনাস্থলে পুলিশের মহা-পরিদর্শক আইজিপি এ কে এম শহীদুল হক আসেন। পরে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশের বিশেষ টিম সোয়টের একটি দলকে ঘটনাস্থল থেকে চলে যেতে দেখা যায়।

সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে ভবনের চারতলায় ‘ওলিও গ্রিন হ্যাভেন’ হোটেলে বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দল প্রবেশ করে। তারা সেখানে একটি ল্যাগেজ দেখতে পেয়েছে। সেটি পরীক্ষা করা হবে।

এর আগে দিবাগত রাত ২টা থেকে পান্থপথ মোড় হতে ধানমণ্ডি ৩২ নাম্বার পর্যন্ত রাস্তা বন্ধ করে রাখে পুলিশ। রাত সাড়ে ৩টা থেকে ভবনটি ঘিরে রাখা হয়।

কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) সূত্র জানিয়েছে, এখানে চালানো অভিযানের নাম দেয়া হয়েছে ‘অপারেশন আগস্ট বাইট’। জঙ্গি আস্তানায় সন্দেহজনক কিছু না পাওয়া যাওয়ায় অভিযান সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে।

সিটিটিসি জানিয়েছে, আত্মঘাতী ওই জঙ্গি খুলনার বিএল কলেজের শিক্ষার্থী ছিল। গতকাল সকালে সে হিজরতে বের হয়েছিল।

পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম জানিয়েছেন, হোটেলের যে কক্ষে বিক্ষোরণ ঘটেছে, আনুমানিক ৩০ বছর বয়সী এক যুবক সোমবার (১৪ আগস্ট) রাতে সেটি ভাড়া নেয়। হোটেলের রেজিস্ট্রার খাতার তথ্য অনুযাযী ওই যুবকের নাম সাইফুল ইসলাম, বাড়ি খুলনার ডুমুরিয়ায়। বি এল কলেজ থেকে সে অনার্স পাস করেছে। আমরা ধারণা করছি, ওই যুবকই নিহত হয়েছে।

ad