ফেসবুক থেকে বাংলাদেশ সরকারকে তথ্য সহযোগিতা

facebook
ad

জাগরণ ডেস্ক : ফেসবুক কর্তৃপক্ষ প্রথম বারের মত বাংলাদেশ সরকারকে তথ্য দিয়ে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। ফেসবুক থেকে প্রতি ছয় মাস অন্তর অন্তর একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। এই প্রতিবেদনকে ‘গভর্নমেন্ট রিকোয়েস্ট রিপোর্ট’ বলা হয়। এই প্রতিবেদনে কোন দেশের সরকার ফেসবুকের কাছে কি অনুরোধ জানায় তা তুলে ধরা হয়।

গত বছরের দ্বিতীয় ভাগের তথ্য নিয়ে এই বছর ২৮ এপ্রিল প্রকাশিত ‘গভর্নমেন্ট রিকোয়েস্ট রিপোর্ট’ এ বলা হয় গত বছরের দ্বিতীয় ভাগে বাংলাদেশ সরকারের ১২টি অনুরোধে ৩১টি অ্যাকাউন্টের তথ্য চাওয়া হয়েছিল।

ফেসবুক থেকে জানানো হয় বিটিআরসি (বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশন) এর অনুরোধে সাড়া দিয়ে তারা চারটি কন্টেন্ট সরিয়ে ফেলেছেন। এর আগে ২০১৫ সালের নভেম্বর এ প্রকাশিত একটি রিপোর্টে বলা হয় বাংলাদেশ সরকার ২০১৫ সালের প্রথমার্ধে তিনটি অ্যাকাউন্ট সম্পর্কে তথ্য চেয়েছিল কিন্তু তাতে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ থেকে কোন সাড়া মেলেনি।

২০১৪ সালে মোট ২২ টি অ্যাকাউন্টের তথ্য চেয়েছিল সরকার এর মধ্যে প্রথমার্ধে ছিল ৫ জনের এবং শেষার্ধে ছিল ১৭ জনের। মোট ৭ টি অনুরোধে এই ২২ টি অ্যাকাউন্টের তথ্য চেয়েছিল সরকার।

এর আগের বছর অর্থাৎ ২০১৩ সালের অগাস্ট মাসে চেয়েছিল ১২ জনের অ্যাকাউন্ট সম্পর্কে তথ্য কিন্তু এই অনুরোধেও সাড়া মেলেনি। ২০১৫ সালের জুন পর্যন্ত কোন তথ্য দিয়ে সহযোগিতার হাত না বাড়ালেও এই বছরই প্রথম বাংলাদেশ সরকারকে তথ্য দিয়ে সহায়তা করেছেন ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। ফেসবুক থেকে বাংলাদেশ সরকারের অনুরোধে সাড়া দেওয়ার হার ১৬.৬৭ শতাংশ।

উল্লেখ্য, এর আগে ফেসবুকের সঙ্গে ‘দরকষাকষির জন্য’ গত বছরের শেষের দিকে ফেসবুক ২২ দিন বন্ধ রেখেছিল বাংলাদেশ সরকার।

ad