বেনাপোলে শিক্ষার্থীদের নিয়েই গাড়ি পরীক্ষা পুলিশের

Jagoran- Benapole, students, car examination, police, 2
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: যশোরের বেনাপোলে পুলিশের সাথে স্কুলের ছেলে মেয়েরা যশোর-বেনাপোল মহাসড়কে গাড়ির ফিটনেস ও লাইসেন্স পরীক্ষা করেছে।

বুধবার (৮ আগস্ট) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত মহাসড়কের দিঘিরপাড় নামক স্থানে বেনাপোল হাইস্কুল ও মরিয়াম মেমোরিয়াল বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা পুলিশের সাথে গাড়ির ফিটনেস ও লাইসেন্স পরীক্ষা করেন।

শিক্ষার্থীরদের স্বতঃস্ফূর্তভাবে ট্রাফিক সপ্তায় গাড়ির কাগজপত্র পরীক্ষা করতে দেখা গেছে। বাদ পড়েনি পুলিশের মোটরসাইকেলও। তারা পুলিশের মোটরসাইকেল দাঁড় করিয়ে তাদের কাজপত্র পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেন। তারা প্রতিটি মোটরসাইকেল চালকের কাগজপত্রের সাথে হেলমেট আছে কিনা তাও পরীক্ষা করেন।

Jagoran- Benapole, students, car examination, police,

স্কুলের শিক্ষার্থীরা যশোর থেকে বেনাপোলে যাতায়াত করা সকল ধরনের যানবাহনের কাগজপত্র দেখে। যে সকল গাড়ির কাগজপত্র এবং ড্রাইভিং লাইসেন্স নেই, তাদের গাড়িতে নিয়ম অনুযায়ী বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ ও ট্রাফিক পুলিশ মামলা দিচ্ছে।

ট্রাফিক ইন্সপেক্টর মান্নান বলেন, বেলা ১টা পর্যন্ত ট্রাফিক পুলিশ ও বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ যৌথভাবে ২৬টি গাড়ির মামলা দেয় এবং ২টি গাড়ি আটক করে। এসব গাড়ির ভেতর অধিকাংশ মোটরসাইকেল ও বাস। এভাবে অভিযান চললে সরকার ও রাজস্ব পাবে আর গাড়ির কাগজপত্র ও ঠিক করবে মালিকরা।

বেনাপোল পোর্ট থানার সেকেন্ড অফিসার শরীফ হাবিবুর রহমান বলেন, এভাবে মাস খানেক গাড়ির কাগজ পত্র দেখা হবে। কাগজপত্র পরীক্ষা-নিরীক্ষা করলে শেষ পর্যন্ত সকল মোটরসাইকেল পরিবহন বাস ট্রাকের কাগজপত্র ঠিক হবে।

বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু সালেহ মাসুদ করিম বলেন, পুলিশ কোনো গাড়ির ড্রাইভার-মালিককে হয়রানি না করে তাদের কাগজপত্র ঠিক আছে কিনা তা পরীক্ষা করে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবে।

ad