মিথ্যা প্রলোভনকারী জঙ্গিদের থেকে সাবধান: ভূমিমন্ত্রী

Land minister
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: বেহেশতে যাওয়ার মিথ্যা প্রলোভন প্রদানকারী জঙ্গিদের থেকে জাতিকে সাবধান থাকার আহ্বান জানিয়েছেন ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ।

বুধবার ঐতিহাসিক পাবনার মাধপুর দিবস উপলক্ষ্যে শহীদ মুক্তিযোদ্ধার স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠান ‘শহীদদের স্মরণে’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ আহ্বান জানান তিনি।

মাধপুরের বটতলায় ১৯৭১ সালের ২৯ মার্চ শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর নেতৃত্বে পাকিস্তানি আর্মিদেরকে প্রতিরোধ করতে গিয়ে প্রথম সম্মুখ যুদ্ধে ১৭ জন মুক্তিযোদ্ধা শহীদ হয়েছিলেন।

ভূমিমন্ত্রী বলেন, যারা জঙ্গিবাদ তৈরি করে এদেশের মানুষকে বিপথগামী করার অপচেষ্টা করছে, যারা বাংলা ভাই তৈরি করেছিলো, যারা বেহেশত পাওয়ার লোভ দেখিয়ে অল্প বয়সী ছেলে মেয়েদের আত্মাহুতি দিতে বাধ্য করছে, যারা এখনো দেশকে অস্থিতিশীল রাখতে চায়, তারা এখনো সংশোধন হয়নি।

তিনি বলেন, বাংলার ইতিহাসের চার বিশ্বাসঘাতক মীর জাফর, গোলাম আযম, খন্দকার মোশতাক ও জিয়াউর রহমানের প্রেতাত্মা ও দোষররা এদেশকে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের আখড়া বানাতে চায়। কিন্তু জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংলায়, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার বাংলাদেশে কখনও তা সম্ভব হবে না।

ভূমিমন্ত্রী বলেন, একাত্তরের শহীদদের কাছে আমাদের অপরিশোধ্য ঋণ রয়েছে। ইসলামের শত্রু, মানবিকতার শত্রু, ইতিহাস বিকৃতকারী স্বাধীনতা বিরোধীদের এদেশ থেকে রাজনৈতিকভাবে নিশ্চিহ্ন করা হবে।

মন্ত্রী তার সহযোদ্ধা ১৭ জন শহীদের স্মৃতি গভীরভাবে স্মরণ করেন এবং বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া চান। একইসাথে তিনি মাধপুর রণাঙ্গণে অংশ নেওয়া সকল শহীদ ও যোদ্ধাদের মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে তালিকাভুক্ত করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট জেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিট কমান্ডকে স্মরণ করিয়ে দেন।

মুক্তিযোদ্ধা সাজেদুল হক নিলুর সভাপতিত্বে এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, পাবনা জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার হাবিবুর রহমান হাবিব, ডেপুটি কমান্ডার আবদুল বাতেন, ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা চান্না মন্ডল, মুক্তিযোদ্ধা মো: রশীদুল্লাহ, ঈশ্বরদী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান রিপন, পাবনা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মাসুম প্রমুখ।

ad