যুদ্ধাপরাধ: দণ্ডপ্রাপ্ত রাজাকার আব্দুল কুদ্দুসের জামিন

Jagoran- suprime court
ad

জাগরণ ডেস্ক: একাত্তরে সংঘটিত হত্যা, গণহত্যাসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে ২০ বছরের দণ্ডপ্রাপ্ত আসামী নোয়াখালীর সুধারামের কুখ্যাত রাজাকার আব্দুল কুদ্দুসকে ছয় মাসের জামিন দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। এই প্রথম মানবতাবিরোধী অপরাধে সাজাপ্রাপ্ত কোনো আসামী জামিন পেল।

বৃহস্পতিবার (২ আগস্ট) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে চার সদস্যের আপিল বিভাগের বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

একইসঙ্গে জামিনের মেয়াদ ছয় মাস পূর্ণ হলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) একটি বোর্ড বসিয়ে তার স্বাস্থ্যগত তথ্য দেয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

আদালতে এ আসামী পক্ষের হয়ে জামিনের জন্য শুনানিতে অংশ নেন অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন। তার সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী তাজুল ইসলাম ও আইনজীবী মাসুদ রানা। আর রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলাম বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের রিপোর্টে আব্দুল কুদ্দুসের ক্যান্সার বিষয়টি উল্লেখ থাকায় তা বিবেচনায় নিয়ে সর্বোচ্চ আদালত তার এই জামিন মঞ্জুর করেন।

গত ১৩ মার্চ মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় তিনজনকে মৃত্যুদণ্ড এবং আব্দুল কুদ্দুসকে ২০ বছরের কারাদণ্ড দেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। তাদের মধ্যে আমির আলী, মো. জয়নাল আবদিন ও আবুল কালাম ওরফে এ কে এম মনসুরের মৃত্যুদণ্ডের রায় হয়েছে।

ad