রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশকে কানাডার পূর্ণ সমর্থন

Rohingya Issue, Bangladesh, Canada, Support,
ad

জাগরণ ডেস্ক: মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা নির্যাতনের কারণে তৈরি হওয়া সংকট নিরসনে বাংলাদেশকে পূর্ণ সমর্থনের কথা জানিয়েছে কানাডা।

শনিবার (৫ মে) সকাল ১০টায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে দুই দিনব্যাপী শুরু হওয়া ইসলামী সম্মেলন সংস্থার (ওআইসি) পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের ৪৫তম সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে যোগ দিয়ে এ ঘোষণা দেন কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড।

তিনি বলেন, লাখ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থীকে আশ্রয় দেয়ায় বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। রোহিঙ্গাদের জন্য মানবতার হাত বাড়িয়ে বাংলাদেশ বর্তমান বিশ্বে অনন্য এক উদাহরণ সৃষ্টি করেছে। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশের ও জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর এর নেয়া পদক্ষেপের সঙ্গে কানাডা সব সময়ই আছে।

ফ্রিল্যান্ড বলেন, এই সংকটে বাংলাদেশ ও শুধু মুসলিম দেশগুলো নয় আমাদের মতো অমুসলিম দেশগুলোকেও এই সহিংসতা বন্ধ এবং রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে ভূমিকা রাখতে হবে। বিশ্ব সম্প্রদায়কে রাখাইন রাজ্যে মানবাধিকার নিশ্চিত করতে হবে, মানবাধিকার লঙ্ঘনের জবাবদিহিতা আদায় করতে হবে এবং অবিলম্বে সহিংসতা বন্ধে সক্রিয় হতে হবে।

কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমি তিন সন্তানের মা। রোহিঙ্গা শিশুদের দুর্দশা দেখে আমিও কান্না সামলাতে পারিনি। রাখাইনের সহিংসতার সবচেয়ে ভয়াবহ রূপ হলো ধর্ষণ। জেনেছি সেখানে টয়লেট পর্যন্ত ধ্বংস করা হচ্ছে যাতে নারীরা খোলা জায়গায় যেতে বাধ্য হয়। নিজেরা যেনো ধর্ষকদের দৃষ্টিতে আকর্ষণীয় না হন সেজন্য তারা গায়ে কাদা-মাটি মেখে থাকছে।

তিনি আরও বলেন, আমি রোহিঙ্গাদের ক্যাম্পে গিয়েছি। এখনো প্রতিদিন মিয়ানমার থেকে রোহিঙ্গারা আসছে। এর মানে হচ্ছে এখনো তাদের ওপর সহিংসতা চলছে।

ad