সিলেট সিটি নির্বাচন: স্থগিত ২ কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ চলছে

Jagoran- Sylhet City election, 2 centers, polling,
ad

জাগরণ ডেস্ক: সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনের দিন স্থগিত থাকা দুই কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ চলছে।

শনিবার (১১ আগস্ট) সকাল ৮টা থেকে কেন্দ্র দুটিতে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে, যা চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। ওই কেন্দ্র দুটি হচ্ছে ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের গাজী বোরহান উদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের হবিনন্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

গাজী বুরহান উদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোটার সংখ্যা ২ হাজার ২২১ জন। আর হবিনন্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ভোটার ২ হাজার ৫৬৬ জন। সব মিলিয়ে এই দুই কেন্দ্রে ভোটের ৪ হাজার ৭৮৭ জন।

গত ৩০ জুলাই সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ১৩৪টি কেন্দ্রের মধ্যে ১৩২টি কেন্দ্রের ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

সংঘর্ষের কারণে ২৭ নং ওয়ার্ডের হবিনন্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও গাজী বুরহান উদ্দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছিল।

১৩২টি কেন্দ্রে ধানের শীষ প্রতীকে মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী ৯০ হাজার ৪৬৯ ভোট ও নৌকা প্রতীকে মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান পেয়েছিলেন ৮৫ হাজার ৮৭০ ভোট।

সেই হিসাবে বিএনপির প্রার্থী ৪ হাজার ৬২৬ ভোটে এগিয়ে ছিলেন। তবে স্থগিত হওয়া দুই কেন্দ্রের ভোট সংখ্যা ৪ হাজার ৭৮৭ অর্থাৎ ব্যবধানের চেয়ে স্থগিত ভোট বেশি হওয়ায় দুই কেন্দ্রের ভোট না হওয়া পর্যন্ত নতুন মেয়রের নাম ঘোষণা স্থগিত করা হয়।

ভোটের তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, ওই দুটি কেন্দ্রের সব ভোটার ভোট দিলে এবং তার প্রায় সব ভোট কামরানের বাক্সে পড়লে তবেই আরিফুল হারতে পারেন। স্থগিত কেন্দ্র দুটির মোট ভোট সংখ্যা একটু বেশি, ৪৭৮৭টি। অর্থাৎ দুই প্রার্থীর ভোটের ব্যবধানের চেয়ে ১৬১টি ভোট বেশি রয়েছে স্থগিত কেন্দ্র দুটিতে। যে কারণ দেখিয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা আলীমুজ্জামান বিজয়ী ঘোষণা করেননি আরিফুলকে।

ওই দুই কেন্দ্রের সব ভোটার যদি ভোট দেন, তাতে আরিফুলকে জয়ী হতে হলে মাত্র ১৬২টি ভোট পেলেই চলবে।

ad