সীমান্তে নিহত দুই বাংলাদেশীর লাশ ফেরত চেয়ে বিএসএফকে চিঠি

Border
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: ঝিনাইদহের মহেশপুরে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে নিহত সোহেল রানা (১৭) ও হারুন অর রশিদ (২০) নামে দুই বাংলাদেশির লাশ ফেরত চেয়ে চিঠি দিয়েছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

মঙ্গলবার (২০ জুন) বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন ঝিনাইদহ খালিশপুর ৫৮ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল জিল্লুর রহমান।

তিনি জানান, আমরা নিশ্চিত হয়েছি ভারতের কুমারীপাড়া এলাকায় দুই বাংলাদেশি বিএসএফ-এর গুলিতে নিহত হয়েছেন। পতাকা বৈঠক ও তাদের লাশ ফেরত আনার পক্রিয়া আমরা শুরু করেছি।

এর আগে স্থানীয় গরু ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীরের সাথে ভারতের অভ্যন্তরে রাখাল হিসেবে গরু আনতে গিয়ে নিহত হন সোহেল রানা ও হারুন। তাদের সাথে আরো অনেকেই ছিলেন বলে জানাগেছে।

মঙ্গলবার ভোরে ভারতের কুমারীপাড়া একটি কলাবাগানের মধ্যে অবস্থানকালে বিএসএফ তাদের উপর গুলি চালায়। এতে ঘটনাস্থলেই সোহেল রানা ও হারুন নিহত হন। অপর একজন পায়ে গুলিবিদ্ধ হয় বলে গোয়েন্দাদের একটি সূত্রে জানাগেছে।

নিহত সোহল রানা মহেশপুরের বাকশপোতা স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্র ও খোসালপুর গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে এবং হারুন অর রশিদ মহেশপুরের শ্যামকুড় মসজিদ পাড়ার কাউসার আলীর ছেলে।

ad